‘করোনা আমাদের কম মানুষ নিয়ে শুটিং করা শিখিয়েছে’

fec-image

সম্প্রতি ক্যারিয়ারের ৪০০তম নাটক নির্মাণ করলেন চয়নিকা চৌধুরী।। নাট্য নির্মাতার পরিচয়ের পাশাপাশি তিনি এখন চিত্রনির্মাতা।

‘বিশ্বসুন্দরী’ শিরোনামে তার প্রথম সিনেমা রয়েছে মুক্তির অপেক্ষায়। করোনার এই সময়ে নাটকের শুটিং ও সিনেমা নিয়ে কথা বললেন গণমাধ্যমের সঙ্গে।

করোনার পরিস্থিতির কারণে অনেকদিন শুটিং বন্ধ ছিল। এখন আবারও শুটিং শুরু হয়েছে। এই সময় আপনার ব্যস্ততা কেমন যাচ্ছে?

আমার তেমন ব্যস্ততা যাচ্ছে না। মার্চে লকডাউনের আগে আমার ৩৯৯ নম্বর নাটকটি শেষ করেছি। এরপর জুলাই মাসে ৪০০ নম্বর নাটকটির পরিকল্পনা ছিল।

কিন্তু এরমধ্যে আমাকে এনটিভি থেকে ফোন করলো যে তাদের বর্ষপূর্তির একটি কাজ করতে হবে। এই বছর আমরা মোস্তফা কামাল সৈয়দকে হারিয়েছি।

আমাদের অনেক পরিচালকের পথচলা তার হাত ধরে। তিনি চলে যাওয়ার পর প্রথম বর্ষপূর্তি এনটিভির। আর সেখানে আমার কাছ থেকে নাটক চাওয়া হয়েছে। এটি আমার জন্য অনেক সম্মানের একটি বিষয় এবং কাজটি আমি করেছি।

আমি ও ফারিয়া হোসেন একসঙ্গে একটি স্ক্রিপ্ট লিখলাম। আমি নাটকটি পরিচালনা করেছি এবং যাদের কাস্টিং করা হয়েছে তাদের বাসায় গিয়ে আমরা কাজটি করেছি।

করোনার মধ্যে এই ধরনের শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা কেমন ছিল?

এটি সম্পূর্ণ ভিন্ন এক অভিজ্ঞতা। করোনা আমাদের কম মানুষ নিয়ে শুটিং করা শিখিয়েছে। আমরা তিনজন মিলে পুরো কাজটি করেছি।

আমি নিজেই একসঙ্গে সহকারীর কাজ করেছি, লাইট ঠিক করেছি বা ক্যামেরা ঠিক করা এসব কিছু করেছি। বাসা থেকে আমি ১৫ জনের খাবার রান্না করে নিয়ে গিয়েছি। যেন সেখানে বাড়তি সময় ব্যয় না হয়।

শেষ পর্যন্ত ৩ দিনে আমরা কাজটি শেষ করেছি। ভালো লাগছে এমন অবস্থায় একটি কাজ করতে পেরে। ‘ব্লাক অ্যান্ড হোয়াইট’ প্রযোজিত ‘গল্প নয়’ শিরোনামের এই নাটকটি আগামী ৩ জুলাই এনটিভিতে প্রচার হবে। নাটকটিতে একটি গান করেছেন তানভীর তারেক এবং আবহসংগীত করেছেন সন্ধি।

আপনার সিনেমার মুক্তি লকডাউনের জন্য পিছিয়ে গেল। এ প্রসঙ্গে জানতে চাই—

‘বিশ্বসুন্দরী’ আমার সিনেমার নাম। আমাদের মুক্তির তারিখ ঠিক ছিল। বেশ প্রশংসার সঙ্গে সেন্সর বোর্ড আমার সিনেমাটিকে ছাড়পত্র দিয়েছে।

এখন ছবিটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান নভেম্বরে সিনেমাটি মুক্তির পরিকল্পনা করেছে। কিন্তু এমন পরিস্থিতে আসলেই কবে সব ঠিক হবে এবং মানুষ হলে ফিরবে সেটি তো জানি না। তবে সব ঠিক হলেই মুক্তি দেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: করোনা, চয়নিকা চৌধুরী।, নাটক
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

11 − three =

আরও পড়ুন