করোনা নিয়ে কাতার বিশ্বকাপে কড়াকড়ি নয়

fec-image

করোনায় আতঙ্কে ছিলো পুরো বিশ্ব। এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। তাই আসন্ন ফুটবল বিশ্বকাপে করোনা নিয়ে বাড়তি কড়াকড়ি রাখছে আয়োজক দেশ কাতার। বিশ্বকাপ দেখতে যাওয়া দর্শকদের জন্য বেশ কিছু নিয়মেই শিথিলতা আনছে তারা। তবে মাস্ক পরিধানে বাধ্যবাধকতা থাকবে ঠিকই।

আগামী ২০ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া ফুটবলের সবচেয়ে বড় এ আসরের খেলা দেখতে কাতার প্রবেশের সময় করোনা টিকার সনদ দেখানো বাধ্যতামূলক করেনি কাতার। অর্থাৎ কারও যদি করোনার টিকা না নেওয়া থাকে, তবু তার বিশ্বকাপের খেলা দেখতে কোনো বাধা নেই।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে এ খবর জানিয়েছেন আয়োজকরা। পাশাপাশি করোনাভাইরাস বিষয়ক বিধিনিষেধের সবিস্তর তথ্যও জানিয়েছে তারা।

কাতারে প্রবেশের সময় ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে করা করোনা পরীক্ষার পিসিআর অথবা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে করা র‍্যাপিড এন্টিজেন টেস্টে নেগেটিভ থাকা বাধ্যতামূলক। অন্যথায় কাতারে প্রবেশের সুযোগ দেওয়া হবে না কাউকে। এমনকি বিশ্বকাপের ম্যাচের টিকিট থাকলেও নয়। বিশ্বকাপ দেখতে কাতারে প্রবেশ করা মাত্রই ১৮ বা তদূর্ধ্ব বয়সী সবাইকে বাধ্যতামূলক ‘এহতেরাজ (Ehteraz)’ নামের মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করে নিতে হবে। যাতে কেউ যদি কাতারে অবস্থানকালে করোনা আক্রান্ত হয়, তার গতিবিধি পরীক্ষা করা সহজ হয়।

তবে মাস্ক পরার ক্ষেত্রে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। যেকোনো পাবলিক প্লেসে ৬ বা তার বেশি বয়স্ক সবাইকে অবশ্যই মাস্ক পরে থাকতে হবে। এছাড়া কেউ যদি কাতারে অবস্থানকালে করোণায় আক্রান্ত হন তাহলে তাকে পাঁচদিন আইসোলেশনে থাকতে হবে এবং পরের পাঁচদিন সবসময় মাস্ক পরে থাকতে হবে।

এর বাইরে বিশ্বকাপ দেখতে যাওয়া দর্শকদের হায়া কার্ডের সঙ্গে জরুরি স্বাস্থ্যসেবাও বিনামূল্যে সংযুক্ত করে দেওয়া হবে। যা কি না কাতারের ভিসা ও স্টেডিয়ামের টিকিটের সঙ্গে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই কার্যকর হয়ে যাবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কাতার বিশ্বকাপ, ফুটবল
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 + one =

আরও পড়ুন