করোনা পরিস্থিতিতে পানছড়ির দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় অসহায়দের পাশে সেনাবাহিনী

fec-image

মানবিক সেবার অংশ হিসেবে খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার প্রদীবপাড়াসহ নীলকারবারীপাড়া, হরিমঙ্গলপাড়া, তালতলা এবং ফাতেমানগর এলাকায় করোনা থেকে পরিত্রাণের জন্য হোম কোয়ারান্টিনে থাকা নিন্মবিত্ত, গরিব, অসহায় এবং দুস্থ জনগোষ্ঠীদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী (খাগড়াছড়ি সদর জোন)।

রোববার (২৯ জুন) সকালে প্রদীবপাড়া‘সহ নীল কারবারী পাড়া, হরিমঙ্গলপাড়া, তালতলা এবং ফাতেমানগর এলাকায় অসহায়, দুস্থদের মাঝে এই ত্রাণ বিতরণ করেন খাগড়াছড়ি সদর জোনের জোন কমান্ডার লে. কর্নেল মো. জাহিদুল ইসলাম, পিএসসি।

এ সময় তিনি করোনা রোধকল্পে অঘোষিত লক ডাউনে থাকা প্রায় ৩৫০ টি পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী তুলে দেন এবং অসহায়দের খোঁজ খবর নেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি সদর জোনের জোন উপ-অধিনায়ক মেজর চৌধুরী মোহাম্মদ ফাহিম আশরাফী, পিএসসি এবং পানছড়ি সাবজোন কমান্ডার ক্যাপ্টেন মো. আহসান হাবীব।

ত্রাণ বিতরণের সময় জোন কমান্ডার অতি জরুরি প্রয়োজন না হলে কাউকে বাইরে না আসার জন্য এবং সরকারি সকল বিধিনিষেধ মেনে চলার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করেন।

এছাড়াও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, বারবার সাবান দিয়ে হাত ধোয়া এবং বাইরে আসলে মাস্ক ব্যবহারের প্রতি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা প্রদান করেন।

তিনি সাংবাদিকদের জানান, খাগড়াছড়ি সদর জোন যেকোনো দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে আর্ত-মানবতার সেবায় বেসামরিক প্রশাসনকে তাৎক্ষণিক সহায়তায় সার্বক্ষণিক পাশে ছিল এবং আগামীতেও পাশে থাকবে।

শান্তি, সম্প্রীতি এবং উন্নয়ন এই মুলমন্ত্রকে সামনে রেখে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী পার্বত্য চট্টগ্রামে দীর্ঘদিন যাবৎ অত্যন্ত দক্ষতার সাথে পেশাগত দায়িত্ব পালন করে আসছে। আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষা, চিকিৎসাসহ সকল সম্প্রদায়ের মাঝে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সেনাবাহিনীর এমন উদ্যোগ ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

তিনি আরও বলেন, পাহাড়ের জনগনের জানমাল রক্ষা ও যেকোন দুর্যোগ মোকাবেলায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে, সেই ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রতিটি সদস্য সদা তৎপর রয়েছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস, খাগড়াছড়ি, পানছড়ি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × one =

আরও পড়ুন