করোনা প্রতিরোধে এগিয়ে কুতুবদিয়া

fec-image

গত একমাস যাবত করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশে। শেষ পর্যন্ত দেশের ৬৪ জেলাতেই কম-বেশি করোনার অশুভ থাবা পড়েছে। কক্সবাজার জেলার ৮ উপজেলার মাঝে শুধু কুতুবদিয়া ছাড়া সব উপজেলায় প্রতিদিন কম হলেও করোনা রোগী মিলছে। শুধু কুতুবদিয়া দ্বীপ উপজেলায় প্রায় দেড় লক্ষ বাসিন্দা এখনো করোনামুক্ত রয়েছে।

বিভিন্ন এলাকা থেকে ফিরে আসা নানা পেশার মানু্ষ করোনাভাইরাস বহণ করছে মর্মে তাদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করে যাচ্ছে পুলিশ প্রশাসন।

থানার ওসি মোহাম্মদ দিদারুল ফেরদাউস বলেন, ঝুঁকি না নিয়ে আমরা প্রতিরোধের দিকেই নজর দিচ্ছি। গত এক মাসে ৩৬০ জন কুতুবদিয়া ফেরত বিভিন্ন পেশার শ্রমিককে তারা প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করেছেন। এদের প্রায় অর্ধেক ইতোমধ্যে মেয়াদ শেষে সুস্থ অবস্থায় বাড়ি ফিরে গেছে।

একই সাথে করোনার প্রভাবে লকডাউনে থাকা কর্মহীন উপজেলা প্রশাসন, ব্যক্তি উদ্যোগের পাশাপাশি পুলিশও ব্যাপকভাবে মানুষদের মাঝে খাদ্যসহায়তা পৌঁছে দিচ্ছেন বলে জানান তিনি।

কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিদের করোনা শনাক্তে স্বাস্থ্য বিভাগ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ডা. মোহাম্মদ জায়নুল আবেদীনকে প্রধান করে করোনা প্রতিরোধ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা. জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী বলেন, এপর্যন্ত তারা ১৮৩ জনের স্যাম্পল কালেকশন করে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। এরমধ্যে বৃহস্পতিবার পাঠানো ১৭ জন‘সহ মোট ১৪২ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। গত শুক্রবারও উপজেলার বিভিন্ন ফার্মেসীম্যান, মালিকসহ ২৫ জনের স্যাম্পল পাঠিয়েছেন।

এখন করোনা প্রতিরোধে মাঠ পর্যায়ে দিনরাত কাজ করা করছেন পুলিশ সদস্য, সংবাদকর্মীদের করোনা টেস্টের ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এ ছাড়া করোনা উপসর্গ সন্দেহ হলে এমন ব্যক্তিরা গোপনে এসেও হাসপাতালে স্যাম্পল দিতে পারবে বলেও জানান তিনি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জিয়াউল হক মীর বলেন, আল্লাহর অশেষ রহমত করোনা মোকাবেলায় প্রতিরোধে সচেতনা ও প্রশাসনিক পদক্ষেপে তারা এগিয়ে আছেন। পুলিশ প্রশাসনসহ স্বাস্থ্য বিভাগ, বিশেষ স্বেচ্ছা সেবক গঠন, জনপ্রতিনিধিগন সহায়তা করে যাচ্ছেন।

পাশাপাশি কর্মহীন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোতে ত্রাণ সহায়তা, রমযান উপলক্ষে সরকারি ঈদ উপহারও প্রশাসনের পক্ষে বিতরণ করা হচ্ছে।

উপজেলার ভিতরে করোনা মুক্ত হলেও বাহির থেকে ফেরত আসা রোধ করা গেলে করোনা ঝুঁকি থাকবেনা বলে তিনি মনে করেন। সেজন্যে সবাইকে একমত হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: উপজেলা প্রশাসন, করোনাভাইরাস, কুতুবদিয়া
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − thirteen =

আরও পড়ুন