করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে টেকনাফ স্থলবন্দরে সতর্কতা অবলম্বন

fec-image

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে টেকনাফ স্থলবন্দরে সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে। টেকনাফ স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন যাতায়াত বন্ধ থাকলেও মিয়ানমারসহ কয়েকটি দেশ হতে পণ্যবোঝাই জাহাজ ও ট্রলারের নিয়মিত যাতায়াত রয়েছে।

বন্দরে আগত ট্রলারের মাঝি-মাল্লাদের চলাচল নিয়ন্ত্রণে রাখা হয়েছে। এছাড়া উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ রাখছে বন্দর কর্তৃপক্ষ।

টেকনাফ স্থল বন্দরের ব্যবস্থাপক জসিম উদ্দিন চৌধুরী জানান, উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনায় সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে। বর্তমানে টেকনাফ বন্দরে ২০টির মতো মিয়ানমারের ট্রলার নোঙ্গর করা রয়েছে। এতে মিয়ানমারের আকিয়াবসহ বিভিন্ন জেলার অর্ধশতাধিক নাগরিক রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ট্রলারের এসব মাঝি-মাল্লারা বন্দরের বাহিরে যেতে পারেননা। বন্দরের অভ্যন্তরে তাদের চলাচল সীমিত রাখা হয়েছে।

এব্যাপারে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা ডা: টিটু চন্দ্র শীল জানান, গত সোমবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশনা পাওয়ার পর জরুরী মেডিকেল টীম গঠন করা হয়েছে। মেডিকেল টীম সার্বক্ষনিক প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এ টিমে একজন মেডিকেল অফিসার, ১ জন উপসহকারী মেডিকেল অফিসার, নার্স ও ব্রাদার থাকবেন ।

তিনি আরও জানান, স্থলবন্দরে কোন শ্রমিকের সর্দি- জ্বরসহ কোন ধরনের সন্দেহজনক লক্ষণ দেখা দিলে হাসপাতালে জানাতে বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ডিসেম্বরে চীনে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস ইতোমধ্যে বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়লেও মিয়ানমারে সংক্রমণের খবর পাওয়া যায়নি। যদিও মিয়ানমারের সাথে চীনের সীমান্ত রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 + 2 =

আরও পড়ুন