করোনা ভাইরাস: মহালছড়ি স্বাস্থ্য বিভাগের বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ

fec-image

সম্প্রতি চীনের উহান শহরে নভেল করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর প্রাদুর্ভাব শুরু হয়ে বৈশ্বিক মহামারীর রুপ নিয়েছে। এই পরিস্থিতি থেকে বাংলাদেশও রেহাই পাইনি। ইতোমধ্যে সরকার সমগ্র বাংলাদেশকে সংক্রমণের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা হিসেবে ঘোষণা করেছে। এহেন পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

এরই অংশ হিসেবে খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জাতীয় নির্দেশনা এবং WHO গাইড লাইন অনুযায়ী COVID-19 সংক্রমণ প্রতিরোধে সর্বাত্মকভাবে বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করে, তা অব্যহত রয়েছে। এছাড়াও সংশ্লিষ্ট বিভাগ/দপ্তরের সাথে সার্বক্ষণিক সমন্বয়ের মাধ্যমে অত্র উপজেলায় সংক্রমণ প্রতিরোধে স্বাস্থ্য বিভাগ ছাড়াও উপজেলা প্রশাসন, সেনাবাহিনী, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, সংবাদকর্মী, জরুরী সেবা প্রদানকারী, সেচ্ছাসেবী সংগঠনসহ সকল কর্মকর্তা/কর্মচারী বৃন্দ দিন রাত নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এই জন্য সকলের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ধর্নিষ্টা চাকমা।

ওই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে মহালছড়িতে ইতিমধ্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়াঙ্কা দত্ত’র সভাপতিত্বে ১০ সদস্য বিশিষ্ট করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটি গঠন করা হয়েছে। মহালছড়ি সরকারি হসপিটালে ইতিমধ্যে সন্দেহজনক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার ৬টি আইসোলেশন বেড প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

প্রবাসী ও ঢাকা-চট্টগ্রাম থেকে আগতদের কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করার জন্য হোম কোয়ারেন্টি ছাড়াও দুটি প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন সেল প্রস্তুত রাখা হয়েছে এবং ইউনিয়ন পর্যায়ে সরকারি বেসরকারি বিদ্যালয় সমুহ প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন সেল হিসেবে চালু রয়েছে।

মহালছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সন্দেহজনক কোভিড-১৯ আক্রান্ত ব্যক্তিদের নমুনা সংগ্রহের জন্য মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ও ল্যাব স্থাপন করে নমুনা সংগ্রহ অব্যাহত রয়েছে এবং তা চট্টগ্রামে পরীক্ষাগারে পাঠানো হচ্ছে।

কোভিড আক্রান্ত মৃত ব্যক্তিকে দাফন/সৎকার ব্যবস্থাপনার জন্য উপজেলা স্যানিটারি পরিদর্শক সুরেশ চাকমাকে প্রধান করে ৭ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এছাড়াও সরকার ঘোষিত ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইড লাইন অনুযায়ী করোনা প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ধর্নিষ্টা চাকমা।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: করোনা ভাইরাস, মহালছড়ি স্বাস্থ্য বিভাগের
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 + 2 =

আরও পড়ুন