কাতারে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু, দীঘিনালায় বাড়ীতে শোকের মাতম

fec-image

কাতারের রাজধানী দোহায় এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃর্ত্যু হয়েছে। নিহত নির্মাণ শ্রমিকের নাম মো. আল আমিন (২৫)। সে দীঘিনালা উপজেলার মুসলিম পাড়া গ্রামের মনু মিয়ার ছেলে। এঘটনায় নিহতের বাড়ি দীঘিনালা উপজেলার মুসলিম পাড়া গ্রামে। পরিবারের একমাত্র বড় সন্তানের অকাল মৃত্যুতে বার বার মূর্ছা যাচ্ছে মা মনোয়ারা বেগম এবং বাবা মনু মিয়া। এঘটনায় এলাকায় শোকের মাতম বইছে।

জানাযায়, দীঘিনালা উপজেলার মুসলিম পাড়া গ্রামের মনু মিয়ার ছেলে আল আমিন (২৫) গত ১ বছর আগে উন্নত জীবন গড়ার স্বপ্ন নিয়ে ৩ লক্ষ টাকা ঋণ করে শ্রমিক হিসেবে কাতারে যায়। সেখানে রাজধানী দোহা’য় “আরআইডিজিই কন্সট্রাকশন”একটি বেসরকারি নির্মাণ কোম্পানী “কাজে যোগ দেয়।

গত বৃহস্পতিবার রাস্তা সংস্কারের সময় নালায় একটি পাঁচ টন ওজনের রিং বসানোর সময় রিং নামানোর মুহুর্তে সেও নালায় পড়ে যায়। পরে রিংটি তার দেহের উপর পড়লে নিম্নাংশ থেতলে যায়।

এব্যাপারে কাতারের দোহা’য় কর্মরত নূর আলম নামে আরেক প্রবাসী জানান, বৃহস্পতিবার রাস্তার নিচ দিয়ে ভূগর্ভস্থ (পানি, বিদ্যুৎ এবং ইন্টারনেট সংযোগ দেয়ার লাইন) রিং বসানোর কাজ করছিলেন। এমন সময় রিং ফেলার পূর্ব মুহুর্তে পা পিছলে আল আমিন গভীর গর্তে পরে যায়। পরে তার কোমরের উপর রিং পরে কোমর থেতলে যায়। ঘটনাস্থলেই আল আমিন মারা যান।

এদিকে আল আমিন এর মৃত্যুর খবরে তার বাড়ীতে শোকের মাতম শুরু হয়।

ঘটনার পর থেকেই আল আমিন এর মা মনোয়ারা বেগম বার বার মূর্ছা যাচ্ছেন। এসময় তিনি সরকারের নিকট সন্তানের লাশ ফেরৎ আনার আকুতি জানান।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine + seven =

আরও পড়ুন