‘কাপ্তাই হ্রদের তলদেশে পলি জমায় দূর্ভোগ সৃষ্টি হচ্ছে’

fec-image

কাপ্তাই হ্রদ সৃষ্টির পর থেকে হ্রদের তলদেশে পলি জমার কারণে দূর্ভোগ সৃষ্টি হচ্ছে। গ্রীষ্ম মৌসুমে হ্রদের পানি শুকিয়ে গেলে নৌ পথে মানুষের চলাচলে খুবই অসুবিধা হয়। পাশাপাশি এ সময় খাবার পানিরও সংকট দেখা দেয়। তার কারণ হচ্ছে পাহাড়ি ঝিরি-ঝর্ণা ও ছড়ার পানি দিন দিন শুকিয়ে যাচ্ছে। এতে পাহাড়ের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট দেখা দেয়।

বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকালে রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ‘টেকসই সামাজিক সেবাদান’ প্রকল্পের আয়োজনে ও ইউনিসেফের সহযোগিতায় পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকায় পানীয় জলের উৎস উন্নয়নের লক্ষ্যে জেলা পর্যায়ে এ্যাডভোকেসী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা এ সব কথা বলেন।

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আরো বলেন, টেকসই সামাজিক সেবাদান প্রকল্প পানির উৎস খুঁজে বের করার যে উদ্যোগ নিয়েছে তা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। এই প্রকল্পের মাধ্যমে পাহাড়ি ছড়া ও ঝর্ণার উৎস খুঁজে বের করে পানি সংকট দুরীকরণে কার্যকর উদ্যোগ নেওয়ার আহবান জানান তিনি। এই কাজে জেলা পরিষদ থেকে সব ধরনের সহযোগিতারও আশ্বাস দেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান।

এ সময় টেকসই সামাজিক সেবাদান প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ড. প্রকাশ কান্তি চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় সিভিল সার্জন ডাঃ শহীদ তালুকদার, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী অনুপম দে, টেকসই সামাজিক সেবাদান প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক মোঃ জানে-ই আলম, ইউনিসেফের ওয়াশ কর্মকর্তা সাফিনা নাজনিনসহ বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিগন উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 − thirteen =

আরও পড়ুন