কাশ্মির ইস্যুতে মধ্যস্থতায় ট্রাম্পকে মোদির অনুরোধের কথা অস্বীকার ভারতের

fec-image

কাশ্মির সংকট নিরসনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শরণাপন্ন হয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। উপত্যকাকে ঘিরে ভারত-পাকিস্তান সম্পর্কে স্থিতিশীলতা আনতে মধ্যস্থতাকারী হতে ট্রাম্পকে অনুরোধ করেছেন মোদি। ট্রাম্পের এমন বক্তব্য উড়িয়ে দিয়েছে ভারত। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মার্কিন প্রেসিডেন্টের কাছে এমন কোনও অনুরোধ করেননি মোদি। মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভিশ কুমার টুইটারে বলেছেন, ‘মার্কিন প্রেসিডেন্টকে এ ধরনের কোনও অনুরোধ করেননি নরেন্দ্র মোদি’।

হোয়াইট হাউসে সোমবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসেন ট্রাম্প। সেই বৈঠকের পরই ট্রাম্প বলেন, ‘২ সপ্তাহ আগেই মোদির সঙ্গে দেখা হয়েছিল। আমরা এ বিষয় (কাশ্মির) নিয়ে কথা বলেছিলাম। উনি তখন বলেছিলেন, আপনি (ট্রাম্প) কি মধ্যস্থতাকারী হবেন? আমি বললাম, কীসের? তখন উনি বললেন কাশ্মির সমস্যা মেটানোর জন্য। কারণ এই সমস্যা বছরের পর বছর ধরে রয়েছে। আমি খুব অবাক হয়ে জিজ্ঞাসা করলাম কতদিন ধরে রয়েছে এই সমস্যা’। ট্রাম্প যখন একথা বলছেন, তখন তার পাশে ছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও। ট্রাম্পের এই কথা শুনে ইমরান বললেন, ‘৭০ বছর ধরে এই সমস্যা রয়েছে’।

কাশ্মির ইস্যুতে ট্রাম্পের এই মন্তব্যের আগে ইমরান খান বলেন, ‘ট্রাম্প বিশ্বের অত্যন্ত শক্তিশালী ব্যক্তি। আমেরিকা অত্যন্ত শক্তিশালী দেশ। উপমহাদেশে শান্তি স্থাপনে আমেরিকা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে…আমার পক্ষ থেকে বলতে পারি, আমরা অনেক চেষ্টা করেছি। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত আমরা কোনও সমাধান বের করতে পারিনি। আশা করছি মার্কিন প্রেসিডেন্ট দু’দেশের সম্পর্ক শক্তিশালী করতে উদ্যোগী হবেন’।

এরপর ট্রাম্প আরও বলেন, ‘আমার মনে হয়, উভয়েই (ভারত-পাকিস্তান) চায়, এ সমস্যার সমাধান হোক। আমার মনে হয়, আমরা সবাই তা চাই। আর আমি যদি সাহায্য করতে পারি, আমি মধ্যস্থতাকারী হতে রাজি’। ট্রাম্পের মন্তব্য শোনার পর ইমরান বলেন, ‘যদি আপনি পারেন, তাহলে মধ্যস্থতা করে এ সমস্যার সমাধান করুন’।

ইমরানের কথা শুনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘এটা সমাধান হওয়া দরকার। উনিও আমাকে একই কথা বলেছেন। দেখা যাক, কী করতে পারি। কাশ্মির সম্পর্কে অনেক কিছু শুনেছি। খুব সুন্দর নাম। বিশ্বের অন্যতম সুন্দর জায়গা এটা। কিন্তু এখন চারদিকে শুধু বোমা। যেখানেই আপনি যান, বোমা রয়েছে। ভয়ঙ্কর অবস্থা। যদি আমি কিছু সাহায্য করতে পারি, তাহলে আমাকে জানান’।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

10 − 8 =

আরও পড়ুন