কুতুপালং লম্বাশিয়া ক্যাম্পে আল ইয়াকিন নেতার কাছে জিম্মি সাধারণ রোহিঙ্গারা

fec-image

বিশ্বের সর্ববৃহৎ শরণার্থী শিবির উখিয়ার কুতুপালং লম্বাশিয়া ক্যাম্পে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে আল-ইয়াকিন নামের রোহিঙ্গা বিদ্রোহী সংগঠন। বিশেষ করে ওই ক্যাম্পের রোহিঙ্গা নেতা হেফজর রহমানের নেতৃত্বে একটি সংঘবদ্ধ গ্রুপ ক্যাম্পে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে সমস্ত কিছু নিয়ন্ত্রণ করে যাচ্ছে৷ তার সাথে জড়িত রয়েছে কুতুপালং এলাকার আলী আকবর নামের এক ব্যক্তি। তার বিরুদ্ধেও একাধিক মামলা রয়েছে বলে সূত্র জানিয়েছে।

সূত্রে জানাগেছে, লম্বাশিয়া ক্যাম্পে এসব বিষয়ে প্রতিবাদ করতে গিয়ে অনেকে জেল-জুলুম, হত্যা-গুমের শিকার হয়েছে। যার ধারাবাহিকতায় গত বৃহস্পতিবার মো. ইউনুছ নামের এক নিরিহ রোহিঙ্গাকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

লম্বাশিয়া ক্যাম্পের মাঝি শফিউল্লাহ অভিযোগ করে বলেন, হেফজর রহমান এর কারণে সাধারণ রোহিঙ্গারা অসহায় হয়ে পড়েছে। সে নিরহ রোহিঙ্গাদের জিম্মি করে চাঁদা আদায় থেকে শুরু করে বিভিন্ন অপকর্ম করে যাচ্ছে।

ওই ক্যাম্পে মুহাম্মদ আলম নামের আরেক রোহিঙ্গা মাঝি বলেন, বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে ইউনুছকে বিনা কারণে পুলিশের নিকট সোপর্দ করেছে। তিনি বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দীর্ঘদিন কর্মরত ছিল এমন কিছু পুলিশকে ব্যবহার করে হেফজর রহমান ওই কাজ গুলো চালিয়ে আসছে।

এ বিষয়ে উখিয়া থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মোবারক হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তার মুঠোফোনে সংযোগ না পাওয়ায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কুতুপালং, রোহিঙ্গারা, লম্বাশিয়া ক্যাম্পে
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × three =

আরও পড়ুন