কুতুবদিয়ায় অস্তিত্বহীন দুই মাদরাসার নাম প্রকাশ

fec-image

দেশ জুড়ে আলোচিত ১১৬ আলেম আর ১ হাজার মাদরাসার তালিকা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এখন ভাইরাল। এসব ভাইরাল হওয়া তালিকায় দ্বীপ কুতুবদিয়ার দু’টি মাদরাসার নাম দেখা যাচ্ছে। এর মধ্যে একটির অস্তিত্ব থাকলেও আরেকটির কোন হদিস নেই উপজেলার কোথাও। ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া তালিকায় ফয়জুল উলুম মাদরাসা , ধুরুং কুতুবদিয়া এই ঠিকানা রয়েছে। মাদরাসায় ৩০ জন শিক্ষক ৭ শতাধিক শিক্ষার্থী। মাদরাসার মুহতামিম হিসেবে মাওলানা ইসমাঈল কুতুবী লেখা রয়েছে।

ধুরুংবাজার ফয়জুল উলুম মাদরাসা ও হেফ্জখানা নামে একটি জরাজীর্ণ মাদরাসার পরিচালক মুহতামিম রহিম উল্লাহ বলেন, তাদের মাদরাসার নামের সাথে কিছুটা মিল থাকা ফেসবুকে প্রকাশিত বিষয়টি তিনি শুনেছেন। এ মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা ইসমাঈল কুতুবী নন। এবতেদায়ি , হেফ্জ ও নূরানী বিভাগে ছোট ছোট ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে ৪শ এর মত। সব মিলিয়ে শিক্ষক ৯ জন। যে সব অভিযোগের বিষয় এসব তালিকা শোনা যাচ্ছে তার সাথে তাদের বিন্দু মাত্রও সঠিক নয়। স্থানীয়ভাবে বিভিন্ন ব্যক্তির দান, জাকাতের অর্থে চলে এ প্রতিষ্ঠান। তিনি এ ধরণের ভুয়া তালিকা বা সংবাদে সবাইকে সতর্ক থাকার অনুরোধ জানান।

অপর দিকে আল জামিয়া রহমানিয়া বড়ঘোপ মাদরাসা নামের একটি ওই ১ হাজার মাদরাসার তালিকায় নাম ভাইরাল হচ্ছে। এ মাদরাসায় মুহতামিম মাওলানা মোখতার আহমদ, ৩৫ জন শিক্ষক আর ৬০০ জন শিক্ষার্থী রয়েছে বলে উল্লেখ আছে। তবে এই ধরণের মাদরাসার কোন অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়নি কুতুবদিয়ায়।

বড়ঘোপ ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মো. নুরুল আলম বলেন, বড়ঘোপে ওই নামের কোন মাদরাসা আছে বলে বা নাম তিনি শোনেননি। মাওলানা মোখতার আহমদ নামের কাউকেও তিনি চেনেন না বলে জানান। সাধারণ মানুষ এই ধরণের ভাইরাল হওয়া বিভিন্ন মাদরাসার নাম দেখে শুধু হতবাক নয় হাস্যরসও করছেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 + 13 =

আরও পড়ুন