কুতুবদিয়ায় টিকা গ্রহণে ‘লেডিস ফাস্ট’

fec-image

কুতুবদিয়ায় করোনা প্রতিষেধক টিকা গ্রহণে অধিক আগ্রহী নারীরা। প্রথম দিকে দ্বীপের মানুষের টিকা গ্রহণে আগ্রহ কম থাকলেও এখন অস্বাভাবিক ভিড় হাসপাতালে। আগতদের অধিকাংশই নারী। ভোগান্তিও কম নয়। ভোর থেকে উপজেলার প্রত্যন্থ অঞ্চল থেকে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে নারী-পুরুষ। ভিড় সামাল দিতে পুলিশের সহায়তাও নিতে হচ্ছে। উপায় না দেখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ভোর সাড়ে ৫টা থেকেই অন্তত ৫টি বুথে টিকা দেয়া শুরু করেন।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, প্রায় ৩৮ হাজার রেজিস্ট্রেশন নিবন্ধিত হয়েছে। প্রথম ডোজ নিয়েছেন ১৫ হাজার ৫০৯ জন। এর মধ্যে ৯ হাজার ৪৪৬ জন পুরুষ ও ৬ হাজার ৬৩ জন নারী। এ ছাড়া রবিবার (২৯ আগস্ট) ৪০৪ জন টিকা গ্রহীতার মধ্যে ২২৮ জনই ছিল নারী এবং ১৭৬ জন পুরুষ। দ্বিতীয় ডোজ নেয় ২ হাজার ৭৬১ জন পুরুষ ও ১ হাজার ২৫৫ জন নারী।

প্রথম দিকে পুরুষের সংখ্যা বেশি থাকলেও গত সপ্তাহেই অন্তত ৬০ ভাগ নারী এসেছে টিকা নিতে। লাইনে নারীর সংখ্যাই বেশি বলে জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা। এক্ষেত্রে উপজেলার সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের ষাট ভাগ নারীই ইতিমধ্যে টিকা গ্রহণ করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। চট্টগ্রামে অধ্যায়নরত ছাত্রী নাছরিন সোলতানা নাছলু জানায়, শুধু টিকা গ্রহণের জন্য বাড়িতে এসেছে। এতো ভিড় হবে তা বুঝতে পারেনি।

হাসপাতালের ইপিআই টেকনিশিয়ান ছৈয়দ কামরুল হাসান, স্বাস্থ্য সহকারি মো. জসীম বলেন, গত ৩ সপ্তাহ ধরে প্রথম ডোজ টিকা দিতে চরম ভিড়ে তারা হিমশিম খাচ্ছেন। ভোর থেকে ভিড় এড়াতে তারা এখন সকাল সাড়ে ৫টায় শুরু করেন টিকা দেয়া। কোন দিন ৬৮০ জন কোন দিন প্রায় ৭‘শ টিকা দেয়া হচ্ছে। এদের অধিকাংশই নারী ।

স্বাস্থ্য বিভাগের করোনা প্রতিরোধ কমিটির প্রধান আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. রেজাউল হাসান বলেন, রেজিস্ট্রেশন হয়েছে প্রায় ৩৮ হাজার। বাকী রয়েছে অর্ধেকের চেয়ে বেশি। টিকারও রয়েছে ঘাটতি। মঙ্গলবার আরও বেশ কিছু টিকা আসবে । যোগাযোগ করে ধৈর্য্য সহকারে টিকা নিতে আসার জন্য পরামর্শ দেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen + 12 =

আরও পড়ুন