কুতুবদিয়ায় বাপা’র গণস্বাক্ষর কর্মসূচি

fec-image

৭০০ একর বনভূমির ইজারা বাতিলের দাবিতে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) কুতুবদিয়া উপজেলা শাখার উদ্যোগে শুক্রবার (৮ অক্টোবর ) বিকাল ৪টায় বড়ঘোপ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সংলগ্ন সিটিজেন পার্ক থেকে গণস্বাক্ষর কর্মসূচি আনুষ্ঠানিক ভাবে শুরু হয়।

এসময় নেতৃবৃন্দরা বলেন, কক্সবাজারের মেরিন ড্রাইভের পাশে শুকনাছড়ির প্রতিবেশ সংকটাপন্ন ও রক্ষিত ৭০০ একর পাহাড়ি বনভূমিতে প্রশিক্ষণ একাডেমি চাই না। চাই বনাঞ্চলে ঝুঁকিতে থাকা হাতিসহ বন্য প্রাণীর সুরক্ষা। গত তিন বছরে কক্সবাজারের বনাঞ্চলে মারা গেছে ১৭টি বন্য হাতি। ১১ লাখ রোহিঙ্গার আশ্রয়শিবির তৈরিসহ সরকারি-বেসরকারি নানা স্থাপনা তৈরির বিপরীতে উজাড় হয়েছে আরও ১২ হাজার একরের বেশি বনাঞ্চল। এতে শতাধিক বন্য হাতির অভয়ারণ্য উজাড়, খাদ্য ও খাওয়ার পানির তীব্র সংকটে পড়েছে বন্য প্রাণী। এমন পরিস্থিতিতে প্রশিক্ষণ একাডেমির বিপরীতে আরও ৭০০ একর বনাঞ্চল উজাড় হলে বন্য প্রাণীর অস্তিত্ব থাকবে না। তাই প্রশিক্ষণ একাডেমির বিপরীতে বরাদ্দ ৭০০ একর বনভূমির ইজারা বাতিলের দাবিতে আমরা মাঠে নেমেছি। বাপার ধারাবাহিক কর্মসূচির মাধ্যমে এবং জেলা ঘোষিত গণস্বাক্ষর কর্মসূচীর অংশ হিসেবে বাপা কুতুবদিয়া উপজেলা শাখা গণস্বাক্ষর আদায় করে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে পাঠানো হবে বলেও জানান।

উক্ত কর্মসূচি উদ্বোধন করেন বাপা কুতুবদিয়া উপজেলা সভাপতি এম, শহীদুল ইসলাম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাপা কুতুবদিয়া উপজেলা শাখার সিনিয়র সহ- সভাপতি মাস্টার তৌহিদুল ইসলাম কাজল, সহ- সভাপতি মাস্টার আমিনুল হক, মাস্টার মিজানুর রহমান, রোমান উদ্দিন, আবুল কাশেম, মো. মোরশেদ আলম, শামীমা ইয়াছমিন ঝর্ণা, আবু ইউছুফ, জয়নাল আবেদীন, হাজী বেলাল, ইমরুল ফারুক, আরিফ উল্লাহ বাদশা, আবদুল মান্নান রানা, মো. পারভেজ, জিয়াবুল হোছাইন প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

11 + sixteen =

আরও পড়ুন