কুতুবদিয়ায় স্বাস্থ‍্য সহকারীদের কর্মবিরতিতে টিকা বঞ্চিত ৫০০ শিশু

fec-image

বাংলাদেশ হেল্থ এ্যাসিসটেন্ট এসোসিয়েশনকে দেয়া প্রতিশ্রুত দাবি বাস্তবায়ন না হওয়ায় কেন্দ্রীয় ঘোষিত কর্মবিরতি পালনে কুতুবদিয়া শাখায় কর্ম বিরতি চলছে ২৬ নভেম্বর থেকে।

ফলে মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) পর্যন্ত ১৩ দিনে স্বাস্থ্য সহকারীদের মাঠ পর্যায়ে কর্ম বিরতি চলায় ৮ কর্ম দিবসে উপজেলার ৬ ইউনিয়নে প্রায় ৫‘শ শিশু নিয়মিত টিকা থেকে বঞ্চিত হয়েছে। এ নিয়ে শিশুদের অনেক অভিভাবক দুঃচিন্তায় পড়েছেন।

এ দিকে গত ৫ ডিসেম্বর হাম-রুবেলা (এমআর) ক্যাম্পেইন শুরুর কথা থাকলেও আবার তা পিছিয়ে ১২ ডিসেম্বর করা হয়েছে। তখনও স্বাস্থ্য সহকারী ও স্বাস্থ্য পরিদর্শকদের কর্মবিরতি অব্যাহত থাকলে ক্যাম্পেইন নিয়েও রয়েছে অনিশ্চয়তা।

হাসপাতালের ইপিআই টেকনিশিয়ান সৈয়দ কামরুল হাসান বলেন, স্বাস্থ্য সহকারী ও পরিদর্শকদের কর্মবিরতির ফলে মাঠ পর্যায়ে সকল ইপিআই কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। আসন্ন এমআর ক্যাম্পেইনের জন্য সকল টিকাসহ আনুসাঙ্গিক সরঞ্জাম মজুদ করা হচ্ছে। এ পর্যন্ত কর্মবিরতির ৮ কর্মদিবসে প্রায় ৫০০ শিশু নিয়মিত টিকা পেত। অবশ্য এগুলো পরবর্তীতে মেকআপ করা সম্ভব বলে তিনি জানান।

বাংলাদেশ হেল্থ এসিসটেন্ট এসোসিয়েশন কুতুবদিয়া শাখার সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোছাইন বলেন, ১৯৯৮ সালে প্রধান মন্ত্রীর ঘোষণা, ২০১৮ সালে ঘোষণা ও ২০২০ সালে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর লিখিত প্রতিশ্রুতি স্বাস্থ্য পরিদর্শক নিয়োগ বিধিসহ বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে তারা কেন্দ্রী সংগঠনের সাথে ঐক্যমতে কর্মবিরতি পালন করছেন। তাদের ন্যায্য দাবি বাস্তবায়ন না হলে কেন্দ্রীয় নিদের্শনা অনুযায়ি কর্মবিরতি চালিয়ে যাবেন বলেও তিনি জানান।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কর্মবিরতিতে, কুতুবদিয়ায়, স্বাস্থ‍্য সহকারীদের
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × three =

আরও পড়ুন