পশুর হাটে চাহিদার শীর্ষে পার্বত্যাঞ্চলের গরু-ছাগল

fec-image

সারাদেশে কোরবানির ঈদে চাহিদার শীর্ষে থাকে পার্বত্যাঞ্চলে সম্পন্ন প্রাকৃতিক পরিবেশে লালন-পালন করা পাহাড়ি গরু-ছাগল।

রাঙ্গামাটির কাপ্তাইয়ে বিভিন্ন দুর্গম এলাকা থেকে আনা গরুগুলো বেচাকেনা চলছে কাপ্তাই নতুনবাজার হাটে। চট্টগ্রামসহ রাঙ্গুনিয়া, রাউজন এলাকা থেকে ক্রেতারা এ হাটে আসছে পাহাড়ি গরু ক্রয় করার জন্য।

রাউজান থেকে আসা গরু ক্রেতা বেলাল ও আশরাফ জানান, আমরা চাই পাহাড়ি গরু। কারণ জানাতে চাইলে তারা জানান, পাহাড়ি গরু প্রাকৃতি সকল ধরনের লতা-পাতা খায়। যার ফলে এ গরুর স্বাদে ও পুষ্টি গুণে ভরপুর। এক কথায় কোন রোগ নেই। তাই সকলে চাই পাহাড়ি গরু।

বিলাইছড়ি ও মাইনি থেকে গরু নিয়ে আসা ব্যবসায়ী মংসুই মারমা ও লাইসাইন চাকমা জানান, আমাদের গরু সব পাহাড়ে জঙ্গলে ছেড়ে দিয়ে লালন-পালন করা। কোন কৃত্রিম উপায়ে প্রক্রিয়াজাত করা খাবার খাওয়ানো হয়নি। গরুগুলো সম্পন্ন প্রাকৃতিক লতা-পাতা খয়ে পাহাড়ের জঙ্গলে বড় হয়েছে। হাটে বিক্রির জন্য গরু আনলে ক্রেতারা পাহাড়ি গরু চায় বেশি। তাই পাহাড়ি গরুগুলো বিক্রি করে লাভবান হওয়া যায়।

কাপ্তাই নতুনবাজার গরু ব্যবসায়ী আবুল কালাম, আশিষ বাবু জানান, এবার কোরবানি ঈদে হাটে বেশ গরু উঠছে। দাম একটু বেশি হলেও বেচাকোনা ভাল হচ্ছে। তবে শেষ মুহূর্তে গরু ও ছাগলের দাম কিছুটা কম হতে পারে বলে জানান তারা।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ঈদু আজহা, কোরবানির হাট, পাহাড়ি গরু
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন