ক্লোজাপের বিজ্ঞাপনে ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাতের অভিযোগে ইউনিলাভারকে উকিল নোটিশ

fec-image

মুসলিম নারীর পোশাকে তৈরি ‘দ্বিধাহীন কাছে আসারগল্প ২০২২’ নামক টিভিসিতে উকিল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।মোহাম্মদ হুজ্জাতুল ইসলাম খানের পক্ষথেকে গতকাল বুধবার (১২ জানুয়ারি) নোটিশটি পাঠিয়েছেন সুপ্রিকোর্টের আইনজীবী এসএম আরিফ মণ্ডল।

নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে, ইউনিলিভার কোম্পানির পণ্যক্লোজ আপ এর বিজ্ঞাপন হিসেবে নির্মিত টিভিসিতে  একটি উপজাতি ছেলের সাথে মুসলিম নারী পোশাক পরিহিত এক মেয়ের কাছে আসার গল্পের নামে বাস্তবতা বিবর্জিত যে দৃশ্য প্রচার করা হচ্ছে তা অনেক মুসলমানের মনে আঘাত দিয়েছে।

বোরখা হেজাব পরিহিত নারীকে দিয়ে স্বামী ছাড়া কোনো পুরুষের সাথে এভাবে মিশতে দেখানো ইসলাম অবমাননা।একারণে বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী এস.এম আরিফ মন্ডল ইউনিলিভার বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষের বরাবর নোটিশ প্রেরণ করেছেন।

নোটিশে তিনদিনের মধ্যে মুসলিম নারীকে নিয়ে তৈরি ‘দ্বিধাহীন কাছে আসার গল্প ২০২২’ নামক টিভিসি বিভিন্ন টেলিভিশনসহ সকল মাধ্যমে প্রচার বন্ধ করতে বলা হয়েছে।

সেই সাথে ইউটিউবসহ সকল সামাজাকি যোগাযোগ মাধ্যম থেকে সরিয়ে দিতে ও বলা হয়েছে।তিন দিনের এ সবপদক্ষে পনেয়ানা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নোটিশটি ইউনিলিভার বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর, চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার ও  হেড অব মার্কেটিং অফিসার বরাবর পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি অনুলিপি দেওয়া হয়েছে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় এবংস্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের সচিবকেও।

সুপ্রিকোর্টের আইনজীবী এসএম আরিফ মণ্ডলজানান, “closeup” দ্বিধাহীন কাছে আসারগল্প ২০২২” শিরানামে দেশে প্রচারিত প্রায় প্রত্যক টেলিশিন চ্যানেলে ইউনিলিভার কোম্পানির একটি ২৫ সেকেন্ডের একটি টিভিসি (Television Commercial) প্রচারিত হচ্ছে এবং ইউটিউবসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ও তা প্রদর্শিতহচ্ছে।

যেখানে একটি মেয়ে মাথায় স্কার্ফ জড়িয়ে স্কুটি চালিয়ে গুগলম্যাপ অনুসরণ করে রামরীপাড়া, বান্দরবন অভিমুখে বন্ধুর খোঁজে ছুটে চলে। অবশেষে মুসলিম ভাবধারার পোশাকপ রিহিত মেয়েটি তার ক্ষুদ্রনৃ-গোষ্ঠির মুখাবয়বের ছেলে বন্ধুকে খোঁজে পেয়ে আবেগে-উচ্ছ্বাসে অন্তরঙ্গভাবে জড়িয়ে ধরে। যা দেশের বৃহত্তম জনগোষ্ঠির মুসলমানদের ধর্মীয়অনুভূতিতেআঘাতকরছে। ভিডিওটি Indecent Advertisement Protibution Act, 1963 এর সংশ্লিষ্ট ধারা মোতাবেক অশোভন এবং বাংলাদেশদ ণ্ডবিধির ২৯৫ (ক) ধারা অনুযায়ী ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার শামিল।

ভিডিওটি ধারণ করে ডিজিটাল মাধ্যমে প্রচারের কারণে এটিডি জিটাল সিকিকুরিটি ২০১৮ এর ২৮ ধারার অধীন অপরাধও বটে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

11 − eight =

আরও পড়ুন