খাগড়াছড়িতে গণধর্ষণ ও ডাকাতি মামলার প্রধান আসামি নুরুল আমিনকে জেল হাজতে প্রেরণ

fec-image

ফলোআপ
খাগড়াছড়িতে আলোচিত গণধর্ষণ ও ডাকাতি মামলার প্রধান আসামি মো. আমিন ওরফে নুরুল আমিনকে ধর্ষণ মামলায় এক দিনের রিমান্ড শেষে সোমবার (৫ অক্টোবার) জেল হাজাতে প্রেরণ করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ওসি তদন্ত মো. গোলাম আফছার।

প্রসঙ্গত, বুধবার(২৩ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত আড়াইটা থেকে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত খাগড়াছড়ি জেলার বলপাইয়া আদাম এলাকায় বিন্দু লাল চাকমার বাড়ীতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির সময় এক প্রতিবন্ধী নারীকে ৯ ডাকাত পালাক্রমে ধর্ষণ করে।এ ঘটনায় ধর্ষিতা মা ৯ অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন এবং ডাকাতির ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা করেন। চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ৭ আসামীকে গ্রেফতার ও ডাকাতির মালামালসহ ডাকাতির সময় ব্যবহৃত সিএনজি অটো রিক্সাটি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতদের গত ২৭ সেপ্টেম্বর খাগড়াছড়ির সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মোরশেদুল আলম, জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সামিউল আলম ও সাখাওয়াত হোসেন চৌধুরী রিয়াদের আদালতে হাজির করা হলে ৬ আসামি দোষ স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দেন। তবে মামলার প্রধান আসামি মো. আমিন ওরফে নুরুল আমিন জবানবন্দী দিতে অস্বীকৃতি জানায়। ফলে পুলিশ পৃথক দুই মামলায় মো. আমিন ওরফে নুরুল আমিন ৭ দিন করে ১৪ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। গত ৩০ সেপ্টেম্বার খাগড়াছড়ি জডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রট সেঁজুতি জান্নাত’র আদালতে দীর্ঘ শুনানীর পর দুই মামলায় এক দিন করে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ রশীদ বলেন, নুরুল আমিনের বিরুদ্ধে অস্ত্র, ডাকাতি, মাদক ও চাঁদাবাজিসহ ৭টি মামলা রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আসামি, খাগড়াছড়িতে, গণধর্ষণ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

10 + 15 =

আরও পড়ুন