খাগড়াছড়িতে ডেঙ্গু রোগ থেকে পরিত্রাণে সেনাবাহিনীর মশারি বিতরণ

fec-image

বর্তমানে বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকায় ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুপথযাত্রী হচ্ছে বিপুলসংখ্যক জনসাধারণ। এরই ধারাবাহিকতায় জনসাধারণকে ডেঙ্গু রোগ হতে পরিত্রাণের জন্য বৃহস্পতিবার (৮ আগষ্ট) ১৪২টি গরীব এবং দুস্থ পরিবারের মধ্যে মশারি বিতরণ করেছে খাগড়াছড়ি সদর জোনের আওতাধীন পানছড়ি সাব জোন। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পানছড়ির সাব জোন কমান্ডার মেজর মোঃ সোহেল আলম।

পানছড়ি সাব জোন এলাকার জনসাধারণ মশারীগুলো পেয়ে অত্যন্ত আনন্দিত হন এবং নিরাপত্তা বাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এছাড়াও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও জনসাধারণ ভবিষ্যতেও এরূপ কার্যক্রম যাতে অব্যাহত থাকে তার জন্য নিরাপত্তাবাহিনীর প্রতি অনুরোধ জানান।

এ ব্যাপারে পানছড়ি সাব জোন কমান্ডার বলেন, ব্যক্তিগত সচেতনতার অভাবে বর্তমানে বাংলাদেশে বিভিন্ন এলাকায় ডেঙ্গু রোগে বিপুলসংখ্যক জনসাধারণ মৃত্যুপথযাত্রী। খাগড়াছড়ি সদর জোন তথা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ইতিমধ্যে ডেঙ্গু রোগ হতে পরিত্রানের নিমিত্তে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালনা করেছে। যদি প্রত্যেক জনসাধারণ নিজ নিজ এলাকা পরিস্কার-পরিক্রছন্ন রাখে এবং ঘুমানোর সময় মশারি ব্যবহার করে তাহলে ডেঙ্গু রোগ হতে পরিত্রাণ পাওয়া সম্ভব।

এ বিষয়ে খাগড়াছড়ি সদর জোন কমান্ডার লেঃ কর্ণেল মোহাম্মদ আরাফাত হোসেন, পিএসসিএর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, পরিস্কার-পরিক্রছন্নতা ঈমানের অঙ্গ। ব্যক্তি সচেতনতা এবং নিজ নিজ এলাকা পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা থাকলে ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়া, ডায়রিয়াসহ বিভিন্ন প্রকারের রোগ হতে পরিত্রান পাওয়া সম্ভব। ইদানিং টেলিভিশন এবং পত্রিকায় এ বিষয়ে বিভিন্ন প্রকার সচেতনতামুলক বিজ্ঞাপন প্রচার করা হচ্ছে। আমি আশা করি খাগড়াছড়ি জেলার জনসাধারণ এ ব্যাপারে সতর্ক থাকবে।

এছাড়াও তিনি বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী পাহাড়ি জনসাধারণসহ পাহাড়ে বসবাসরত জনগণের আর্থ-সামাজিকক উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষা, চিকিৎসাসহ সকল সম্প্রদায়ের মধ্যে সম্প্রীতি রক্ষায় সেনাবাহিনীর এরূপ উদ্যোগ ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five + 10 =

আরও পড়ুন