খাগড়াছড়িতে বিএনপি ও আ’লীগসহ ১১ প্রার্থী মনোয়নপত্র দাখিল

নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:

খাগড়াছড়ি সংসদীয় আসনে (২৯৮) আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ  ১১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছে। সকাল থেকে প্রার্থীরা রিটার্নিং অফিসার মো. শহিদুল ইসলামের  কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এ সময় কতিপয় প্রার্থীর পক্ষে ব্যাপক শো-ডাউন করা হয়।

সকালে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীর মিছিল নিয়ে কদমতলীস্থ অস্থায়ী কার্যালয় থেকে এসে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

এসময় জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা দোস্ত মোহাম্মদ চৌধুরী, নুরন্নবী চৌধুরী, সিনিয়র সহ সভাপতি রণ বিক্রম ত্রিপুরা, সহ সভাপতি কল্যান মিত্র বড়ুয়া, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নির্মলেন্দু চৌধুরী, দীঘিনালা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. কাশেম, মাটিরাঙ্গা উপজেলা আ’লীরে সভাপতি ও পৌরসভা মেয়র মো. শামছুল হকসহ জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। দুপুর সোয়া ১২টার দিকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আবদুল ওয়াদুদ ভূইয়া, শহিদুল ইসলাম ভূইয়া ফরহাদ মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

এ সময় খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি প্রবীন চন্দ্র চাকমা, মংসাথোইয় চৌধুরী, মোসলেম উদ্দিন চেয়ারম্যান, ক্ষেত্র মোহন রোয়াজা, যুগ্ম-সম্পাদক আব্দুল মালেক মিন্টু, অনিমেষ চাকমা  রিংকু, সাংগঠনিক সম্পাদক এমএন আবছার, আব্দুর রব রাজা, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক মো. মোশারফ হোসেন, সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. মফিজুর রহমান, সদর পৌর বিএনপির সহ সভাপতি নাসির উদ্দিন তালুকদার, জেলা যুবদলের সভাপতি মাহাবুব আলম সবুজ, সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক জাহেদুল আলম, জেলা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদীকা কুহেলী দেওয়ান, জেলা স্বেছাসেবক দলের সভাপতি মো. নজরুল ইসলামসহ বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এদিকে বিকালে বিএনপির অপর মনোনীত প্রার্থী সমীরন দেওয়ান মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এছাড়াও জাতীয় পাটির সোলায়মান আলম শেঠ, আওয়ামী লীগের দুই মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক সংসদ সদস্য যতীন্দ্র লাল ত্রিপুরা, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সমীর দত্ত চাকমা, গণফোরামের আমজাদ হোসেন চৌধুরী, ইসলামী আন্দোলনের আব্দুল জব্বার গাজী, ইউপিডিএফ (প্রসীত) গ্রুপের কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব চাকমা ও নতুন কুমার চাকমা দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

মনোনয়নপত্র দাখিল শেষে কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেন, গত পাঁচ বছর এলকার সাম্প্রদায়িক-সম্প্রীতি রক্ষাসহ সকল সেক্টরে ব্যাপক উন্নয়ন করেছি। তার প্রতিদান হিসেবে জনগণ এবারও বিপুল ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত করবেন।

অপর দিকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. শহীদুল ইসলাম ভূইয়া ফরহাদ অবাধ ও সুষ্ঠু হলে তার বিজয় নিশ্চিত দাবি করে বলেন, এখনো নির্বাচন মাঠ সমতল হয়নি। বিএনপির নেতাকর্মীদের এখনো নানাভাবে হয়রানী করা হচ্ছে।

জাতীয় পার্টির সোলায়মান আলম শেঠ বলেন, খাগড়াছড়ি জাতীয় পার্টির ঘাটি। আমার  বিজয় নিশ্চিত। তবে  কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত মেনে নেবো।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seven − four =

আরও পড়ুন