খাগড়াছড়িতে সরকারি অস্ত্র লুটের ঘটনায় আনসার সদস্যের যাবজ্জীবন

fec-image

খাগড়াছড়িতে সহকর্মীকে খুন করে সরকারি অস্ত্র লুটের ঘটনায় অভিযুক্ত আনসার সদস্য রফিকুল ইসলামকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডে দন্ডিত করেছে আদালত।

মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) বিকালে খাগড়াছড়ির জেলা ও দায়রা জজ রেজা মো. আলমগীর হাসানের আদালত এ রায় দেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ৩ জুলাই দীঘিনালা কবাখালী হেডম্যান পাড়া চৌধুরী হিল আনসার পোস্টের ব্যারাকে বাক-বিতন্ডার একপর্যায়ে আনসার সদস্য রফিকুল ইসলাম নিজের কাছে থাকা সরকারি অস্ত্র দিয়ে নায়েক আমির হোসেনকে গুলি করে হত্যা করে। এরপর সরকারি অস্ত্র ও গুলি নিয়ে পোস্ট থেকে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনার পরের দিন ল্যান্স নায়েক মো. আক্তার হোসেন বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে মামলা করেন। অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত রফিকুল ইসলামকে অস্ত্র আইন ১৮৭৮ এর ১৯ এ এবং ১৯ এফ ধারায় অভিযুক্ত করে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেন। অস্ত্র মামলার অপর আসামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের খালাস দেয় আদালত।

খাগড়াছড়ি জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট বিধান কানুনগো জানান, এরআগে দন্ডিত রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে সহকর্মীকে খুনের ঘটনায় অপর আরেকটি মামলায় গত ২৪ সেপ্টেম্বর মৃত্যুদণ্ড দেন একই আদালত।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আদালত, খাগড়াছড়ি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 5 =

আরও পড়ুন