খাগড়াছড়িতে ৭ হাট-বাজার থেকে ধর্মঘট প্রত্যাহার

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

পার্বত্য চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী বৈসাবী অনুষ্ঠান উদযাপন এবং এইচএসসি পরীক্ষার কথা বিবেচনা করে এমএন লারমা জেএসএস (সংস্কার) এবং ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) জোটের উদ্যোগে কেন্দ্রিয় কমিটির সিদ্ধান্ত মতাবেক জনগণের স্বার্থ বিবেচনা করে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) থেকে সকল কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে বলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হয়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সর্বসাধারণের জন্য জানানো হয়, খাগড়াছড়ি জেলার উপজেলাধীন পানছড়ি বাজার অত্র পানছড়ি তথা সংলগ্ন অন্য এলাকাগুলোর জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক স্থান। পানছড়ি বাজার বিপুল জনগণের নিত্য নৈমত্তিক চাহিদা পূরণের একটি অন্যতম স্থান। এই বাজারকে কেন্দ্র করে ইউপিডিএফ (প্রসিত পন্থি) গত বছর ১৮ মে থেকে পানছড়ি বাজার বয়কট ও বর্জন কর্মসূচি পালন করে আসছে।

তাদের এই কর্মসূচি জনসাধারণের ভয়ভীতি প্রদর্শন, হয়রানী, ক্রেতা-বিক্রেতা নিত্য নৈমিত্তিক চাহিদা পূরণে বাধাঁ প্রদান হেনেস্থা করার কারণে বাধ্য হয়ে খাগড়াছড়ি শহরস্থ স্বনির্ভন, ভাইবোনছড়া, নারায়নখাইয়াসহ অন্যান্য বাজার থেকে সাধারণ জনগণ নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী কিনতে বাধ্য হয়ে ভোগান্তি শিকার হচ্ছে। পানছড়ি বাজারে সপ্তাহিক হাটবারসহ সাধারণ দিনে ক্রেতা/বিক্রেতা ইউপিডিএফ (প্রসিত পন্থির) বাধা প্রদানের কারণে বাজারে যেতে না পেরে ব্যবসায়ীগণ ব্যাপক ক্ষতির শিকার হন। তবে গত সেপ্টেম্বর থেকে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের আগ পর্যন্ত পানছড়ি বাজারের সাধারণ ক্রেতাগণের চলাচল কিছুটা ক্রেতা বিক্রেতা বেড়ে যাওয়ায় কেনাবেচা বাড়ায় বাজারের পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হয়।

কিন্তু উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের পর থেকে ইউপিডিএফ (প্রসিত পন্থি) পুনরায় গত ৩০ মার্চ থেকে বাজার বর্জনসহ নানা অযুক্তিক কর্মসূচি দিয়ে সাধারণ জনগনকে বিভ্রান্ত সৃষ্টি করে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে জনগণের স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিয়ে আবারও সাধারণ জনগণকে পানছড়ি বাজারে আসা যাওয়ার বাধাঁ বিঘ্ন ঘটিয়ে হুমকিমূলক আচরণ করতে থাকে।

ইউপিডিএফ (প্রসিত পন্থি) এর জনস্বার্থ বিরোধী কর্মকান্ডের প্রতিবাদে এবং স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরে আনতে গত ১ এপ্রিল এমএন লারমার আদর্শে উজ্জেবিত জেএসএস (সংস্কার) এবং ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ২ এপ্রিল থেকে স্বনির্ভর বাজারের সকল/ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ প্রদান করে। কিন্তু পার্বত্য চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী বৈসাবী অনুষ্ঠান উদযাপন এবং এইচএসসি পরীক্ষার কথা বিবেচনা করে এমএন লারমা জেএসএস (সংস্কার) এবং ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) জোটের উদ্যোগে কেন্দ্রিয় কমিটির সিদ্ধান্ত মতাবেক জনগণের স্বার্থ বিবেচনা করে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) থেকে সকল কর্মসূচি স্থগিত করা হলো।

সেই পরিপ্রেক্ষিতে বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ইউপিডিএফ (প্রসিত পন্থি) যদি পানছড়ি বাজার বর্জনসহ নানা কর্মসূচি থেকে বিরত না থাকে তাহলে পুনরায় স্বনির্ভর বাজার, ভাইবোনছড়া বাজারসহ অন্যান্য বাজার দোকান/ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ এবং যানবাহন চলাচল বন্ধসহ পুনরায় কঠোর কর্মসূচি প্রদান করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: খাগড়াছড়িতে ৭ হাট-বাজার থেকে ধর্মঘাট প্রত্যাহার
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − 3 =

আরও পড়ুন