খাগড়াছড়ির ৪৫টি মন্ডপে চলছে শারদীয় দূর্গা পূজার প্রস্তুতি

titu_pt_1253187757_1-Maa_Durga

এইচ এম প্রফুল্ল,খাগড়াছড়ি:

প্রতিবছরের মতো এবারও খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় শুরু হয়েছে শারদীয় দূর্গাপূজার সর্বাত্মক প্রস্তুতি। জেলাশহর এবং ৮ উপজেলার ৪৫টি মন্ডপে চলছে, প্রতিমা তৈরীর কাজ। এরিমধ্যে কোন মন্ডপে মৃৎ শিল্পীদের হাতে নিঁপূণ ছোঁয়ায় দেবী দূর্গার বিমূর্ত অবয়ব ফুটে উঠেছে। ঢাক-ঢোলের দোকানে ভীড় করছেন, পূজার্থীরা। দূর্গা উৎসবের মুল আকর্ষণ “আরতি”র জন্য সবাই যে যার সামর্থ্য অনুযায়ী কিনছেন নতুন ঢোল অথবা মেরামত করছেন পুরনো ঢাক।  

পূজার সময় যতোই ঘনিয়ে আসছে ততোই ব্যস্ততা বাড়ছে হিন্দু ধর্মাবলম্বী ও ত্রিপুরা জনগোষ্ঠির মাঝে। সবচেয়ে বড়ো উৎসব হবার কারণে দূর্গা মন্ডপগুলোতে প্রতিবছর ভীড় করেন, অন্যান্য ধর্মাবলম্বীরাও। তাই এবারও খাগড়াছড়ি দূর্গা পূজাকে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উৎসব হিসেবেই দেখতে চান, পূজার আয়োজকরা।
এজন্য জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশের পাশাপাশি আন্তঃ সম্প্রদায় সভাতেও মিলিত হচ্ছেন, পূজা উদযাপন পরিষদের নেতারা। ইতি মধ্যে খাগড়াছড়ি পুলিশ প্রশাসন পূজার সার্বিক আইন-শৃঙ্খখলা বিষয়ে জেলার পূজা উদযাপন কমিটির সাথে পৃথক বৈঠক করেছে ।

খাগড়াছড়ি জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধরন সম্পাদক তরুণ কুমার ভট্টাচার্য্য জানান, দেশের বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে নিরাপত্তার বিষয়টি গুরত্ব দিয়ে নেতৃত্ব পর্যায়ে একাধিক বৈঠক হয়েছে।
খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার শেখ মো: মিজানুর রহমান জানান, পুজা শান্তিপূর্ন পরিবেশে উদযাপনে তিন স্তরের নিরাপত্তা বলয় থাকবে। মোতায়েন থাকবে  ২৪টি স্টাইকিং ফোর্সসহ ১৩শ ৪৬ জন পুলিশ, আনসার ও ভিডিপি সদস্য।

সারাদেশের ন্যায় খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলাতেও সনাতন ধর্মাবলম্বী হিন্দু ও ত্রিপুরা সম্প্রদায় সবচেয়ে বড়ো এই উৎসবে মহানন্দে শামিল হন। শহর ছাপিয়ে গ্রামেও ছড়িয়েছে আড়ম্বর আমেজ। দূর্গা পূজার মাধ্যমে পুজারীরা আশা করছেন, দেশ-সমাজ থেকে মুছে যাবে অমঙ্গল। আর জাগবে সর্বজনীন মনুষ্যত্ব।
 

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 + eight =

আরও পড়ুন