হেফাজত নেতাদের বিরুদ্ধে সরকার মামলা করেনি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

খাগড়াছড়ি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের থেকে ৬ জেলায় ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম উদ্বোধন

fec-image

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি বলেছেন, যে কেউ নাগরিক অধিকার ক্ষুন্ন হলে মামলা দায়ের করতে পারেন। বিচার বিভাগ স্বাধীন ও নিজেদের মতো করে কাজ করছে দাবি করেন। হেফাজত ইসলামের সাবেক আমির আহমদ শফির মৃত্যুর ঘটনায় স্বজনদের করা মামলায় সরকারের কোন ইন্ধন নেই। সরকার এ মামলা করেনি। তাই মামলা প্রত্যাহার হবে কি না সে বিষয়ে মামলার সংশ্লিষ্টরা জানে।

বৃহস্পতিবার (২৪ ডিসেম্বর) দুপুরে খাগড়াছড়ি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস থেকে পার্বত্য তিন জেলা, কক্সবাজার, চাঁদপুর ও নারায়ণগঞ্জ জেলায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ই-পাসপোর্ট সেবার কার্যক্রম উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, পাসপোর্ট সেবাকে মানুষের দোড়গোঁড়ায় পৌঁছে দিতে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশই প্রথম ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম চালু করেছে। আমরা পাহড়ে আর রক্ত ঝড়াতে চাই না। সরকার শান্তিচুক্তি বাস্তবায়নের কাজ করছে।

পরে তিনি জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ে সুরক্ষা বিভাগের আওতাধীন পাসপোর্ট, ফায়ার সার্ভিস, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ, কারা অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময়সহ জেলার আইন-শৃঙ্খলা কমিটির বিশেষ সভায় যোগদান ও জেলা কারাগার পরিদর্শন করেন।

এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ বাসন্তী চাকমা, বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আইয়ুব চৌধুরী, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা বিভাগের সচিব মো: শহিদুজ্জামান, গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো: শাহরিয়ার জামান, ই-পাসপোর্টের প্রকল্প পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাইদুর রহমান খান, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরী, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব(রাজ) মো: জাহাঙ্গীর আলম, বিজিবি সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মো: জাহাঙ্গীর হোসেন, ডিজিএফআই ডেট কমান্ডার কর্নেল মুহাম্মদ মালেক হোসেন, খাগড়াছড়ি সদর জোন কমান্ডার জাহিদুল ইসলাম, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর একান্ত সচিব দেওয়ান মাহবুবুর রহমান, জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু, খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস ও পুলিশ সুপার আব্দুল আজিজসহ সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিসহ জেলা সকল সেবামূলক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: পার্বত্য চট্টগ্রাম, প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 5 =

আরও পড়ুন