খাগড়াছড়ি জাপার আহবায়ক হলেন মণীন্দ্র লাল ত্রিপুরা

fec-image

সাবেক বিএনপির নেতা মণীন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে আহবায়ক ও প্রকৌশলী কেশব লাল দে-কে সদস্য সচিব করে খাগড়াছড়ি জেলা জাতীয় পাটির আহবায়ক কমিটি অনুমোদন দিয়েছে জাপার কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি।

গত ১৫ অক্টোবর জাতীয় পাটির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম-দপ্তর সম্পাদক মাহমুদ আলম স্বাক্ষরে এ কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়।

খাগড়াছড়ি জেলা জাতীয় পার্টির আগের কমিটির সদস্য সচিব ইঞ্জিনিয়ার খোরশেদ আলম জেলা জাতীয় পার্টির নতুন আহবায়ক কমিটি অনুমোদনের কথা স্বীকার করলেও এ কমিটি কত সদস্যের বলতে পারেননি। সদস্য ঘোষিত খাগড়াছড়ি জেলা জাতীয় পাটির আহবায়ক মণীন্দ্র লাল ত্রিপুরা জানান. এ কমিটিকে আগামী ৩ মাসের মধ্যে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট খাগড়াছড়ি জেলা শাখার আহবায়ক কমিটি সম্পন্ন করার শর্তে দেওয়া হয়।

খাগড়াছড়ি জাতীয় পাটির নতুন আহবায়ক মণিন্দ্র লাল ত্রিপুরা বলেন, সংগঠনকে গতিশীল ও শক্তিশালী করে তুলতে আমার সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। তিনি জাতীয় পার্টিকে এদেশের মাটি ও সংগঠন দাবি করে বলেন, আগামীতে ঐক্যবদ্ধ জাতীয় পার্টির যে কোন কর্মসূচি সফলভাবে বাস্তবায়নসহ পার্টির সকল কার্যক্রম আরো সুদৃঢ হবে।

প্রসঙ্গত, মনীন্দ্র লাল ত্রিপুরা এক সময় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের জনসংযোগ কর্মকর্তা ছিলেন। ২০০১ সালে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে খাগড়াছড়ি থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ওয়াদুদ ভূইয়াকে পার্বত্য উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান পদে নিযুক্ত করা হলে মনীন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে তার একান্ত সচিব পদে নিয়োগ দেওয়া হয়। পরবর্তিতে মণীন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নিয়োগ দেন ওয়াদুদ ভূইয়া। ২০০৮ সালের ২৭ অক্টোবর খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য অনুপম ত্রিপুরার ঢাকার একটি হোটেলে রহস্যজনক মৃত্যু হলে মণীন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে ঐ মামলায় গ্রেফতার করা হয়। ২০০৯ সালে অনুষ্ঠিত খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সম্মেলনে মণীন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে সহ-সভাপতি করা হয়।

২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিরোধীতা করাসহ দলীয় শঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে তাকে সংগঠন থেকে বহি:স্কার করা হলে গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে মণীন্দ্র লাল ত্রিপুরা জাতীয় পাটিতে যোগ দেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 5 =

আরও পড়ুন