স্বেচ্ছাচরিতা, দূর্নীতি, অনিয়ম ও অর্থের বিনিময়ে কমিটি দেওয়ার অভিযোগে

খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদকের বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল ও অবাঞ্ছিত ঘোষণা

fec-image

লাগাতার স্বেচ্ছাচরিতা, দূর্নীতি, অনিয়ম ও অর্থের বিনিময়ে কমিটি দেওয়ার অভিযোগে খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি টিকো চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন ফিরোজকে অবাঞ্ছিত ঘোষণাসহ মেয়াদত্তীর্ন জেলা কমিটি বিলুপ্ত করার দাাব জানিয়েছে ছাত্রলীগের জেলা ও সকল ইউনিটের নেতাকর্মীরা।

বুধবার(৫ ফেব্রুয়ারি) খাগড়াছড়ি জেলা ও সকল ইউনিটের ব্যানারে আয়োজিত ঝাড়ু মিছিল, সমাবেশ ও সাংবাদিক সম্মেলন করে এ দাবি জানানো হয়।

বক্তারা আরও বলেন, অন্যথায় তৃণমূল ও জেলা ছাত্রলীগ যৌথভাবে সংগঠনের কার্যক্রম গতিশীল করার লক্ষ্যে খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন কমিটি ঘোষণা করতে হবে।

দুপুরে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে সহশ্রাধিক নেতাকর্মীর একটি ঝাড়ু মিছিল বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক ঘুরে পৌর শাপলা চত্বরে সমাবেশ শেষে দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করে।

সমাবেশ ও সাংবাদিক সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেন, স্বেচ্ছাচরিতা, দূর্নীতি, অনিয়ম ও অর্থের বিনিময়ে কমিটি মনগড়া কমিটি ঘোষণা করে এই দুই নেতা বিএনপি ও জামাতের সক্রিয় নেতৃবৃন্দকে পুর্নবাসনের মাধ্যমে আওয়ামী রাজনীতি ধ্বংসের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছে।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি খোকন চাকমা, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক বাপ্পি চৌধুরী, জেলা মহালছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জিয়াউর রহমান, পানছড়ির সভাপতি সিকান্ত দেব মানিকসহ জেলা, উপজেলা ও কলেজসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।

নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেন, ২০১৫ সালে টিকো চাকমা সভাপতি জহির উদ্দিন ফিরোজ খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ার পর কোন ধরনের সভা করতে পারেনি। বিগত বিভিন্ন নির্বাচনগুলোতেও তাদের ভূমিকা ছিল বিতর্কিত।

সংগঠনকে শক্তিশালী করতে ব্যর্থ হলেও সম্প্রতি এই বিতর্কিত ছাত্রলীগের দুই নেতা বিভিন্ন ইউনিটের কমিটি বাতিল করছে এবং দলের ত্যাগী ও যোগ্য নেতাদের বাদ দিয়ে অর্থের বিনিময়ে বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের সক্রিয় নেতৃবৃন্দকে নিয়ে দিয়ে কমিটি গঠন করছে।

নেতৃবন্দ আগামী সাত দিনের মধ্যে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সংসদের কাছে খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি টিকো চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন ফিরোজের সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান।

কর্মসূচী চলাকালে তীব্র যানজটে পুরো শহর অচল হয়ে পড়ে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: খাগড়াছড়ি, চাকমা, ছাত্রলীগ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × one =

আরও পড়ুন