গর্ভবতী মায়েদের চারটি স্বাস্থ্য পরীক্ষা অত্যন্ত জরুরী: মা সমাবেশে ডা. রেজাউর রহমান

dighinala-news-picture-24-10-2016-copy

দীঘিনালা প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার জোড়াব্রিজ কমিউনিটি ক্লিনিকে সোমবার এক মা সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. রেজাউর রহমান বলেছেন, গর্ভবতী মায়েদের অন্তত চারটি স্বাস্থ্য পরীক্ষা অত্যন্ত জরুরী। প্রথম পরীক্ষা গর্ভবতী হওয়ার চতুর্থ মাসে, দ্বিতীয় পরীক্ষা সপ্তম মাসে, তৃতীয় পরীক্ষা অষ্টম মাসে এবং চতুর্থ পরীক্ষা নবম মাসে।

তিনি আরও বলেন, প্রথম স্বাস্থ্য পরীক্ষায় সন্তানের অবস্থায়, মায়ের শারীরিক অবস্থাসহ অনেক কিছুই দেখা হয়। দ্বিতীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষার সময় মায়ের রক্তের হিমোগ্লোবিন, রক্তের গ্রুপ, প্রস্রাব পরীক্ষা করা হয়। তৃতীয় পরীক্ষায় গর্ভস্থ সন্তানের বৃদ্ধির পরিমাপ করা হয়। পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নিবেন আপনারা গর্ভবর্তী মাকে সন্তান প্রসব কোথায় করাবেন, আর্থিক অবস্থা বিবেচনা করে এটা সর্ম্পর্ণ তার পরিবারের উপর নির্ভর করে। তবে যথাসময়ে গর্ভবর্তী মায়েদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা খুবই গুরুত্বসহকারে দেখার জন্য সব্রা প্রতি আহবান জানান।

সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা নিটুদেওয়ান। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন  কবাখালী ইউনিয়নের স্বাস্থ্য পরিদর্শক প্রদীপ চাকমা, স্বাস্থ্য সহকারী ধর্মজয় চাকমা, কমিউনিটি হেলথ প্রোভাইডার পারুমিতা চাকমা, এবং নবারুন জ্যোতিদেওয়ান।

সমাবেশে উপজেলার ক্ষেত্রপুর, জোড়াব্রিজ, জাম্বুরাপাড়া, ডানে কবাখালী, বামে কবাখালীর দূর্গম গ্রামের গর্ভবতী এবং দুগ্ধদানকারী মায়েরা উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + 4 =

আরও পড়ুন