গুইমারায় প্রশাসনের গাড়ি দেখে দৌড়ে পালানোর সময় অসুস্থ হয়ে যুবকের মৃত্যু

fec-image

খাগছড়ির গুইমারায় রাস্তার পাশে আড্ডারত তিন যুবক হঠাৎ প্রশাসনের গাড়ি আসতে দেখে বেসামালভাবে দৌড়ে পালালেন পাহাড়ের থলিতে। ওখানে গিয়ে একজন হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। চিকিৎসার জন্য মানিকছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার(২১ এপ্রিল) সন্ধ্যায় উপজেলার বড়পিলাক এলাকায় রাস্তার পাশে ড্রেনের ওয়ালের উপর বসে গল্প করছে মৃত সালাউদ্দিনসহ তিন যুবক।অন্ধকারে হঠাৎ প্রশাসনের গাড়ি আসছে উপলব্দি করেই দৌড় দেয় তিনজন। দৌড়ে পালাতে পাশের পাহাড়ের থলিতে চলে যান। এরপর দুজন উঠে চলে আসলে ও উঠে আসেনি সালাউদ্দিন।পরে খোঁজাখুজি করে পাহাড়ের থলিতে অসুস্থ হয়ে মাটিতে শোয়া অবস্থায় সালাউদ্দিন পাওয়া যায়।

পাহাড় থেকে এনে স্থানীয় চিকিৎসক সরোয়ারকে দেখালে তিনি দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পরামর্শ দেন। সঙ্গে সঙ্গে মানিকছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে গুইমারা থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, মহামারী করোনার কারনে উপজেলার সকল মানুষকে সামাজিক দুরত্ব ও নিজ বাড়িতে অবস্থানের জন্য সকল প্রশাসন কাজ করে যাচ্ছে।

গত কাল সন্ধ্যায় রাস্তার পাশে মৃত সালাউদ্দিনসহ তারা তিনজন আড্ডারত অবস্থায় বসেছিলো। অন্ধকারে হঠাৎ প্রশাসনের গাড়ি আসছে উপলব্ধি করে দৌড়ে পালিয়েছে তারা। দৌড়ানোর কারনে সালাউদ্দিন অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাকে চিকিৎসা নিতে মানিকছড়ি হাসপাতালে নেওয়া হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এদিকে হঠাৎ সন্তানের মৃৃত্যুতে সালাউদ্দিনের বাড়িতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: গুইমারা, প্রশাসন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × one =

আরও পড়ুন