গুর্খা সম্প্রদায়: কপালে তিলক, বাসনা মঙ্গল

fec-image

পাহাড়ি জেলা রাঙামাটিতে বসবাসরত গুর্খা সম্প্রদায় আড়ম্বর আয়োজনের মধ্যে দিয়ে টিকা লাগানো (কপালে ফোঁটা লাগানো) উৎসব পালিত করেছে। শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) বিজয়া দশমীর অঞ্জলী প্রদান শেষে গুর্খা সম্প্রদায় দিনব্যাপী এ উৎসবে মেতে উঠেন।

এদিকে রাঙামাটি শহরের জেলা রোড এলাকায় সুর নিকেতন প্রতিষ্ঠাতা ও গুর্খা সম্প্রদায়ের নেতা মনোজ বাহাদুর গুর্খা ও তার সহধর্মিনী লক্সমি মানজি গুর্খার আয়োজনে সুর নিকেতন সুর নিকেতন সঙ্গীত শিক্ষালয় ভবনে তাদের সম্প্রদায়ের লোকজন নিয়ে মোমবাতি প্রজ¦লনের মাধ্যমে উৎসবটির শুভ সূচনা করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙামাটি প্রেস

ক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন রুবেল বলেন, গুর্খা সম্প্রদায়ের কৃষ্টি, সাংস্কৃতি, ঐতিহ্য ধরে রাখতে হলে ভ্রাতৃত্ববন্ধনে আবদ্ধ হয়ে নতুন প্রজন্মকে এগিয়ে চলার পথ দেখাতে হবে। যাতে করে এই নতুন প্রজন্ম গুর্খা সম্প্রদায়ের বিভিন্ন উৎসব ও আচার অনুষ্ঠান যথাযথ ভাবে উৎসব মুখর ভাবে পালন করতে পারে।

সুর নিকেতন প্রতিষ্ঠাতা ও গুর্খা সম্প্রদায়ের নেতা মনোজ বাহাদুর গুর্খা বলেন, আদিকাল থেকে পার্বত্য চট্টগ্রামে বসবাসরত গুর্খা সম্প্রদায়ের মানুষ শারদীয় দূর্গা উৎসব বিজয়া দশমীর দিনে অঞ্জলী প্রদান অনুষ্ঠান শেষে টিকা লাগানো উৎসব পালন করে আসছে। এই উৎসবের মাধ্যমে সম্প্রীতি-ভ্রাতৃত্ববোধ ও পারস্পরিক সৌহাদ্য উত্তর উত্তর বৃদ্ধি পাবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সাংবাদিক মিল্টন বাহাদুর গুর্খা বলেন, টিকা লাগানো শব্দের মূল অর্থ হলো- কপালে ফোঁটা লাগানো। বাড়ির বয়ো:জৈষ্ঠরা ছোটদেরকে আ বাদ ও মঙ্গলকামনায় কপালে ফোঁটা লাগিয়ে দেন।

অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন, বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি দীপেন কুমার ঘোষ, কাউখালী সরকারি কলেজের অধ্যাপক রিপন ঘোষ, নারী নেত্রী শিলা রায়, বিগ এইচ প্রোডাকসনের স্বত্তাধিকারী ও বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী হিমাদ্রী গুর্খা মিতুল,গুর্খা সম্প্রদায়ের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও সুর নিকেতন সঙ্গীত শিক্ষালয়ের শিক্ষার্থীবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 − 11 =

আরও পড়ুন