বিচারকের নির্দেশে দুইদিন পর আদালতে হাজির

চকরিয়ায় এসএসসি পরীক্ষার হল থেকে ১ পরীক্ষার্থী আটক

fec-image

চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ স্কুল কেন্দ্রে  এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিলেন শিক্ষার্থী মো.জিসান। রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে চকরিয়া থানা পুলিশের একটি দল পরীক্ষা কেন্দ্রে ঢুকে ওই শিক্ষার্থীকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

পরবর্তীতে থানায় গিয়ে পরিবার সদস্যরা যোগাযোগ করলে পুলিশ তাদেরকে জানায়, একটি সন্দেহভাজন বাড়ি ডাকাতির ঘটনায় তাকে (ওই পরীক্ষার্থীকে) আটক করা হয়েছে।

পরদিন সোমবার তাকে আদালতে পাঠানোর নিয়ম থাকলেও পুলিশ তা করেননি। কেন আদালতে পাঠানো হচ্ছেনা জানতে চাইলে উল্টো পরিবার সদস্যদেরকে ভীতি দেখানো হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন পরীক্ষার্থীর মাতা রৌশন আরা বেগম।

এ অবস্থায় নিরুপায় আটক পরীক্ষার্থী জিসানের মাতা চকরিয়া উপজেলার পুর্ববড় ভেওলা ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের ডলনীঘোনা গ্রামের মরহুম জালাল আহমদের স্ত্রী রৌশন আরা বেগম সর্বশেষ মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) চকরিয়া উপজেলা সিনিয়র জুড়িসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি ফৌজদারী অভিযোগ দাখিল করেন।

আদালতের বিচারক অভিযোগটি আমলে নিয়ে তাৎক্ষনিক চকরিয়া থানা পুলিশকে নির্দেশ দেন আটক পরীক্ষার্থী জিসানকে আদালতে হাজির করতে।

বাদি রৌশন আরা বেগম অভিযোগ করেছেন, আদালতের নির্দেশে থানায় আটকাবস্থা থেকে দুইদিন পর পুলিশ মঙ্গলবার বিকালে পরীক্ষার্থী জিসানকে আদালতে হাজির করেছে।

তিনি আরও বলেন, তার আগে আমার ছেলেকে বেধম প্রহার করা হয়েছে। তবে তাকে একটি বাড়ি ডাকাতি মামলায় সন্দেহভাজন আসামি হিসেবে দেখিয়েছে পুলিশ। যদিও ওই মামলার এজাহারে কোন আসামির নাম নেই।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আটক, আদালত, এসএসসি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − eleven =

আরও পড়ুন