চকরিয়ায় কৃষকলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

fec-image

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ঘোনারপাড়ায় ঘুম থেকে ডেকে তুলে সরওয়ার কামাল (৩৫) নামের এক কৃষকলীগ নেতাকে বুকে গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তিনি স্থানীয় একটি আর্টস স্কুলের শিক্ষকও।

রোববার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে পাঁচ সদস্যের অজ্ঞাত দুর্বৃত্ত এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত করে বলে পুলিশ ও প্রতিবেশীরা জানিয়েছে।

নিহত সরওয়ার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের মালুমঘাটের মিঠাছড়ি এলাকার মৃত ছৈয়দ নূর সিকদারের পুত্র। বিয়ের পর দীর্ঘবছর ধরে তিনি পাশের ইউনিয়ন ফাঁসিয়াখালীর ঘোনার পাড়ায় শ্বশুড়ের দেওয়া জায়গায় বাড়ি তৈরি করে বসবাস করে আসছিলেন এবং ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নে একটি আর্টস স্কুলও প্রতিষ্ঠা করেন। দীর্ঘদিন ধরে ফাঁসিয়াখালীতে থাকার সুবাদে তিনি ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদকেরও দায়িত্ব পালন করেন।

ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদের ৯নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. মহি উদ্দিন বলেন, রোববার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে পাঁচ সদস্যের একদল সশস্ত্র দুর্বৃত্ত বাড়িতে গিয়ে ঘুম থেকে ডেকে তুলেন সরওয়ারকে। এ সময় সরওয়ার পাশ্ববর্তী সাদেক নামের একজনকে ফোন করলেও কোন কথা বলছিলেন না সরওয়ার। তখন কয়েকজনের আওয়াজ শুনতে পান সাদেক। এই অবস্থায় সাদেক তার বাড়ির ছাদে উঠে টর্চ জ্বালিয়ে সরওয়ারের বাড়ির দিকে আলো ছুঁড়েন। এ সময় বাড়ির উঠানে কয়েকজনকে দেখতে পেয়ে ভয়ে বাড়িতে ঢুকে তাকে (মহি উদ্দিন) ফোন দেন। এর পর বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করেন তিনি।’

মহিউদ্দিন আরো জানান, হত্যাকাণ্ডের সময় বাড়িতে একাই ছিলেন সরওয়ার। সন্তানদের নিয়ে তাঁর স্ত্রী গিয়েছিলেন কোনাখালী ইউনিয়নে নিকটাত্মীয়ের বিয়েতে।

এ বিষয়ে চকরিয়া থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। লাশ উদ্ধারের পর সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর থানায় মামলা রুজু করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine + two =

আরও পড়ুন