চকরিয়ায় ছুরিকাঘাতে টমটম চালককে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ

fec-image

কক্সবাজারের চকরিয়ায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে মো. তারেক (১৮) নামে এক টমটম চালককে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাস্থল থেকে গুরুতর আহতবস্থায় টমটম চালককে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করা হয়েছে। আহত তারেক বিএমচর ইউনিয়নস্থ উত্তর বহদ্দার কাটা এলাকার বদি আলমের ছেলে।

সোমবার (১৪সেপ্টেম্বর) দুপুর সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার বিএমচর ইউনিয়নস্থ বহদ্দার কাটা মাদ্রাসার পূর্ব পাশে টমটমের গ্যারেজে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার বিএমচর ইউনিয়নস্থ বহদ্দার কাটা মাদ্রাসার পূর্ব পাশে টমটমের গ্যারেজে উত্তর বহদ্দার কাটা এলাকার বদি আলমের ছেলে টমটম চালক মো. তারেক সকালে তার টমটম (ইজিবাইক) গাড়িটি গ্যারেজে মেরামত করতে নিয়ে যান। গাড়ি মেরামত করার সময় একই এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে জসিম ও জাহেদের সাথে টমটম চালক তারেকের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে তর্কাতর্কিতে জড়িয়ে য়ায। তর্কের এক পর্যায়ে জসিমের ভগ্নিপতি মোকতার আহমদ প্রকাশ হাইব্রিডের নেতৃত্বে জসিমসহ তার ভাই জাহেদ ও মনু দেশীয় তৈরি চুরি এবং লোহার রড নিয়ে শত্রুতার জের ধরে অতর্কিতভাবে টমটম চালক তারেকের ওপর হামলা চালিয়ে বেড়ধক মারধর ও তার শরীরের পিঠে, কোমরে ও হাতে বিভিন্ন জায়গায় চুরিকাঘাত করে গুরুতর জখম করে আহত করেন। স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করা হয়।

আহত টমটম চালকের বাবা বদি আলম জানান, তারেক তার টমটম গাড়িটি নিয়ে সকালে গ্যারেজে মেরামত করতে নিয়ে যায়। ওই সময় জয়নাল আবেদীনের ছেলে জসিম, জাহেদ ও তাদের ভগ্নিপতি মোকতার আহমদ (হাইব্রিড) সাথে তুচ্ছ ঘটনার বিষয়ে শত্রুতার জের ধরে আমার ছেলে তারেককে তারা মরধর করে ছুরিকাঘাতে প্রাণে মারার চেষ্টা চালায়। খবর পেয়ে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে প্রাণে রক্ষা করেন। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

বিএমচর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জিয়াদুল ইসলাম সেলিম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনাটি সম্পূর্ণ অনাকাঙ্ক্ষিত একটি ঘটনা। তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে মূলত এ ঘটনাটি করেছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: অভিযোগ, চকরিয়ায়, ছুরিকাঘাতে
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × one =

আরও পড়ুন