চারপোকা-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে মা-ছেলে নিহত

fec-image

কক্সবাজার থেকে  চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফেরার পথে টেকনাফের মেরিন ড্রাইভ সড়কে চারপোকা-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে মা-ছেলে নিহত হয়েছে। এসময় ছেলের বাবাও আহত হন।

বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে কক্সবাজার থেকে মেরিন ড্রাইভ সড়ক পথে মারিশবনিয়া এলাকায় পৌঁছলে এঘটনা ঘটে।

নিহতরা হচ্ছে টেকনাফ পৌরসভার নাইট্যংপাড়া এলাকার জকির আহমদের স্ত্রী সমজিদা (৩৫) ও নিহতের এক বছরের শিশু পুত্র শোয়াইব এবং আহত ব্যক্তি হচ্ছে নিহত শিশুর বাবা জকির আহমদ (৪০)।

আহতরা হচ্ছে তার ১ বছরের শিশু পুত্র শোয়াইব ও স্বামী জকির আহমদ (৪০)। এর মধ্যে শিশু শোয়াইব আশংকাজনক বলে জানিয়েছেন টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডাঃ শংকর দেবনাথ।

এদিকে প্রত্যক্ষদর্শী ও খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বুধবার সকালে অসুস্থ শিশু শোয়াইবকে নিয়ে কক্সবাজারে চিকিৎসার জন্য গিয়েছিলেন জকির। সাথে স্ত্রী সনজিদাকেও নিয়ে গিয়েছিলেন। সেখানে চিকিৎসা শেষ করে বৃহস্পতিবার আছরের পর সিএনজি যোগে টেকনাফ বাড়ির উদ্দেশে ফিরছিলেন। ফেরার পথে সন্ধা সাড়ে ছয় টারদিকে মারিশবনিয়া এলাকায় পৌঁছলে বিপরীতমুখী চারপোকার গাড়ীর সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলে সনিজদা ও শিশু শোয়াইব গুরুতর আহত হয়। আহতদের দ্রুত টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক সনজিদাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দূর্ঘটনা কবলিত গাড়ি জব্দ করেছে বলে জানা গেছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: নিহত, সড়ক দুর্ঘটনায়
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 − 4 =

আরও পড়ুন