‘টাইমস হায়ার এডুকেশন’ র‍্যাংকিংয়ে ৭ম ডিআইইউ

fec-image

বিশ্বের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ র‍্যাংকিং হিসেবে স্বীকৃত ‘টাইমস হায়ার এডুকেশন র‍্যাংকিং’ এ মর্যাদাপূর্ণ স্থান অর্জন করেছে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।

বুধবারে (২১ এপ্রিল) প্রকাশিত এ র‍্যাংকিং তালিকায় বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (ডিআইইউ)’র অবস্থান ৭ম এবং প্রথম স্থান অর্জন করেছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি, তৃতীয় ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, ৪র্থ ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ, ৫ম ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এবং ৬ষ্ঠ ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ।

জানা গেছে, এ বছর এতে বিশ্বের ৯৪টি দেশ ও অঞ্চলের ১১১৫টি প্রতিষ্ঠান স্থান পেয়েছে। জাতিসংঘ নির্ধারিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের ভিত্তিতে এ র‌্যাংকিং করা হয়। এজন্য চারটি সূচককে ব্যবহার করা হয়। সেগুলো হচ্ছে- গবেষণা, স্টিয়ার্ডশিপ, আউটরিচ এবং শিক্ষণ। ইমপ্যাক্ট র‌্যাঙ্কিং ২০২১-এ প্রথমবারের মতো শীর্ষ স্থানে রয়েছে যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়।

গুণগত শিক্ষার দিক থেকে এগিয়ে থাকা বিশ্বের ১১১৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে অন্যতম শীর্ষে অবস্থান করা একটি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি’। বাংলাদেশের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য এটি সত্যিই এক অভূতপূর্ব অর্জন।

ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি পথচলার শুরু থেকেই জ্ঞানার্জনের সংস্কৃতির বিকাশ, শিক্ষার দর্শন এবং প্রযুক্তির মাধ্যমে যোগাযোগ উন্নয়নে ধারাবাহিকভাবে চেষ্টা করে যাচ্ছে। র‍্যাংকিং-এ এমন শক্তিশালী অবস্থান সেই চেষ্টারই স্বীকৃতি।

উল্ল্যেখ্য, টাইমস হায়ার এডুকেশন হচ্ছে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বিশ্বব্যাপী বিশ্ববিদ্যালয় সমূহের মূল্যায়নকারী কর্তৃপক্ষ ও উচ্চশিক্ষার তথ্য প্রদানকারী শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠান।

বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ ও তাৎপর্যপূর্ণ এ র‍্যাংকিংয়ে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি’র এমন শক্তিশালী অর্জনের ব্যাপারে উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মো. আবু তারেক বলেন, ‘এ অভূতপূর্ব অবস্থান অর্জনে আমি ও আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্ট সকলেই খুব খুশি।

তিনি আরও বলেন,’আমাদের শিক্ষাযাত্রার এখানে এসেই থেমে গেলে চলবে না। এডুকেশন র‍্যাংকিং -এ শীর্ষে পৌঁছে সমগ্র জাতিকে শিক্ষাসেবা দেওয়াই আমাদের মূল লক্ষ্য।’

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 − one =

আরও পড়ুন