টানা বর্ষণে পাহাড়ি ঢলে নাইক্ষ্যংছড়ির নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

fec-image

#বাঁকখালী নদীর পানি বিপদ সীমার উপর #কোনারপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ৫ হাজার রোহিঙ্গার আতর্নাদ #যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন #রোহিঙ্গা শিশুর লাশ উদ্ধার

দু’দিনের টানা বর্ষণে পাহাড়ি ঢলে সৃষ্ট বন্যায় নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ৫ ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। বিশেষ করে বাইশারী ও ঘুুমধুমের কয়েকটি গুরুত্বপুর্ণ এলাকা ডুবে গেছে। রামু-নাইক্ষ্যংছড়ি সড়কের যোগাযোগ সড়ক বন্ধ হয়ে গেছে। ঘুমধুমে কোনারপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ৫ হাজার রোহিঙ্গাদের আতর্নাদ লক্ষ্য করা গেছে। তবে কয়েকটি এনজিওর তাদের সহায়তায় তৎপর বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আলম কোম্পানী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি জাহাঙ্গির আলম বাহাদুর বলেন, উজানের পানিতে সৃষ্ট বন্যা বাইশারীর ৯টি  ওয়ার্ডের নিন্মাঞ্চল তলিয়ে গেছে। অনেক স্থানে রাস্তা ঘাট ডুবে গেছে। আরও বৃষ্টি হলে পাহাড় ধসের আশঙ্কা করছেন তারা।

থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আলমগীর হোসেন বলেন, দু’দিনের বর্ষণে যোগাযোগ ব্যবস্থা ডাউন হয়ে গেছে। সদরে বিজিবি স্কুল মাঠ, বড়ুয়া পাড়া, হাইস্কুল এলাকা ও বাইশারী-তুমরুর কিছু এলাকায় পানিতে রাস্তা-ঘাট ডুবে গেছে। ঘুমধুম ছড়া থেকে এক রোহিঙ্গা শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ সোমবার বিকেলে। তার নাম আবদুর রহমান (৮)। পিতা-আবদুর রশিদ। কুতুপালং বালুখালী ক্যাম্প নম্বর -৮ এর বাসিন্দা সে।

অফিসার ইনচার্জের ধারণা এ লাশটি ৩ দিন আগের। ঘুমধুম ছড়াতে ভাসমান অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়। এ বিষয়ে থানায় একটি ইউডি মামলা করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সালমা ফেরদৌস জানান, দু’দিনের বর্ষণে উজানের পানি এসে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। পরিস্থিতি জেলা প্রশাসনকে জানানো হয়েছে। পাহাড় ধস নিয়ে মাইকিং করা হচ্ছে। আর পাহাড়ি ঢলে প্লাবিত এলাকায় সাহায্য পাঠাচ্ছে প্রশাসন। সব ধরণের প্রস্তুুতি গ্রহন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, এ সংবাদ লেখার সময়েও মূষলধারে বৃষ্টি হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 + 16 =

আরও পড়ুন