টেকনাফে আইস, অস্ত্র ও মিয়ানমারের নাগরিকসহ আটক ২

fec-image

কক্সবাজারের টেকনাফে বিজিবি অভিযানে চালিয়ে এক কেজির বেশি ক্রিস্টাল মেথ বা আইস, ২০ হাজার ইয়াবা, পিস্তল ও মিয়ানমারের নাগরিক রোহিঙ্গা সহ দুই যুবককে আটক করা হয়েছে।

১৭ ডিসেম্বর ভোররাতে হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়া এলাকায় জালিয়ারদ্বীপ সংলগ্ন নাফ নদীতে অভিযান চালিয়ে ওইসব মাদক-অস্ত্রসহ তাদের আটক করে।

এরা হলেন হ্নীলা ইউনিয়নের মোচনী এলাকার মৃত আব্দু রহিমের ছেলে দ্বীন মোহাম্মদ (৪০) ও মিয়ানমার মংডুর শিয়া কনদং এলাকার মৃত লাল মিয়ার ছেলে বদি আলম (৩০)।

২ বিজিবির অধিনায়ক লেফট্যানেন্ট কর্নেল শেখ খালিদ মোহাম্মদ ইফতেখার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, মাদকের একটি বড় চালান বাংলাদেশে প্রবেশ করবে। এরই প্রেক্ষিতে গভীর রাতে সদর ও দমদমিয়া বিওপির দু’টি বিশেষ টহল দল নাফ নদীতে কৌশলে অবস্থান নেয়।

কিছু সময় অতিবাহিত হওয়ার পরে একটি হস্তচালিত কাঠের নৌকাকে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ঢুকে জালিয়ারদ্বীপের কাছাকাছি পৌঁছলে বিজিবির টহলদল নৌকাটিকে চ্যালেঞ্জ করে । নৌকার আরোহীরা চ্যালেঞ্জকে উপেক্ষা করে নৌকা ঘুরিয়ে মিয়ানমার সীমান্তের দিকে চলে যেতে থাকলে, বিজিবি টহলদল নৌকাটিকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়লে থামানো হয়। পরবর্তীতে বিজিবির টহলদল স্পীড বোটের সাহায্যে বিভিন্ন দিক থেকে ঘেরাও করে নৌকাটি ২ জন আরোহীসহ আটক করতে সক্ষম হয় । নৌকাটি তল্লাশী করে নৌকাটির ভিতরে পাটাতনের নিচে একটি কম্বলের ভিতরে লুকায়িত অবস্থায় বিদেশি পিস্তল, এক কেজি ক্রিস্টাল মেথ আইস, ২০ হাজার ইয়াবাসহ অন্যান্য মালামাল উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। যার মূল্য পাঁচ কোটি ঊনআশি লক্ষ ষাট হাজার টাকা।

দ্বীন মোহাম্মদ তালিকাভুক্ত একজন পাচারকারী জানিয়ে অধিনায়ক জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক এবং চোরাচালান আইনে টেকনাফ থানায় মামলা দেয়ার এবং উদ্ধারকৃত অস্ত্র, মাদক এবং অন্যান্য মালামাল যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট হস্তান্তর করার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

11 − one =

আরও পড়ুন