টেকনাফে তৃতীয় ধাপে উপজেলা নির্বাচনে জয়ী হলেন যারা

fec-image

সারাদেশের ন্যায় তৃতীয় ধাপে টেকনাফ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন শান্তিপূর্ণ ভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এবারে প্রথমবারের মতো টেকনাফ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ইভিএম এর মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়। এতে চেয়ারম্যান পদে জয়ী হয়েছেন জাফর আহমদ। তিনি এর আগেও একবার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি আনারস প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৫২ হাজার ৩ শত ৬৭ ভোট এবং তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আলম টেলিফোন প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩৫ হাজার ৯ শত ১ ভোট। অপর প্রার্থী মোটরসাইকেল প্রতীকে দিদার মিয়া পেয়েছেন ২ হাজার ১শত ৩৩ ভোট। নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান জাফর আহমেদের পুত্র।

পুরুষ ভাইস-চেয়ারম্যান পদে জয়ী হয়েছেন টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে সরওয়ার আলম। তার প্রাপ্ত ভোট ৩৯ হাজার ৩৫। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মাইক প্রতীকের মাওলানা রফিক উদ্দিন পেয়েছেন ৩৫ হাজার ১শত ৫৪ ভোট, চশমা প্রতীক নিয়ে আবু ছিদ্দিক আবু পেয়েছেন ১৬ হাজার ১শত ৯২ ভোট।

মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে রেকর্ড সংখ্যক ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন ফুটবল প্রতীক নিয়ে মর্জিনা আক্তার সিদ্দিকী। তার প্রাপ্ত ভোট ৬১ হাজার ৪শত ১। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান পদ্মফুল প্রতীক নিয়ে তাহেরা আক্তার মিলি পেয়েছেন ১৮ হাজার ৩শত ৮৪ ভোট, কলস প্রতীক নিয়ে গোলাপজান আক্তার পেয়েছেন ১০ হাজার ৯৩ ভোট।

বিজয়ী হয়ে নবনির্বাচিত টেকনাফ উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহমদ বলেন, এবারের নির্বাচনে জনগণের চাপে আমি প্রার্থী হয়েছি এবং আল্লাহর রহমতে বিজয়ী হয়েছি। টেকনাফকে একটি মডেল ও শান্তির নগরী হিসাবে গড়ে তুলতে টেকনাফ বাসীর সহযোগিতা কামনা করছি।

টেকনাফ উপজেলা সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মেহেদী হাসান বলেন, টেকনাফের ভোটার শান্তিপূর্ণভাবে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পেরেছেন। কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়াই নির্বাচন অত্যন্ত সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এদিকে বৈরী আবহাওয়ার কারণে সেন্টমার্টিন-দ্বীপ কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম এবং ভোট গ্রহণকারী কর্মকর্তাগণ যেতে না পারায় নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। ফলে বুধবার ওই একটি কেন্দ্রে নির্বাচন হয়নি।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাচন ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মেহেদী হাসান বলেন, ‘সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিয়ে সেন্টমার্টিনে ইভিএম এর বক্সসহ নির্বাচনি সরঞ্জামাদি পাঠানো হলেও বৈরী আবহাওয়ার কারণে সেন্টমার্টিন দ্বীপ কেন্দ্রে ভোট গ্রহণকারী কর্মকর্তাগণ যেতে পারেননি। তাঁরা ঘাট থেকে ফেরত এসেছেন।

উল্লেখ্য, সেন্টমার্টিন দ্বীপ একটিমাত্র কেন্দ্রে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ হাজার ৭১৩ জন। তম্মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ হাজার ৮৫৮ এবং মহিলা ভোটার ১ হাজার ৮৫৫ জন।

এদিকে, প্রথম বারের মত টেকনাফ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রথমবার ইভিএমে ভোট দিতে পেরে অনেক ভোটার উল্লাস ও সহজ পদ্ধতি বলে নিজেদের অনুভূতি প্রকাশ করেন। অনেকে প্রক্সি ভোট থেকে রেহাই পেতে ইভিএম এর বিকল্প নেই বলেও মত প্রকাশ করে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: উপজেলা নির্বাচন, টেকনাফ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন