টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে মাদক পাচারকারী নিহত

fec-image

কক্সবাজারের টেকনাফে সাবরাং বেড়িবাঁধ এলাকায় পুলিশ-বিজিবির যৌথ অভিযানের সময় মাদক চোরাকারবারীদের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনায় সিরাজ (২৭) নামে এক ইয়াবা পাচারকারী নিহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় বিজিবি ও পুলিশের দুজন করে সদস্য আহত হয়েছেন।

অভিযানে ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

নিহত সিরাজ সাবরাং আচারবুনিয়া এলাকার ফজল আহমদের ছেলে।

টেকনাফ-২ বিজিবির উপ-অধিনায়ক মেজর শরীফুল ইসলাম জমাদ্দার বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় বিজিবি অভযান চালিয়ে সিরাজকে ৫০ হাজার পিস ইয়াবাসহ আটক করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, এদিন (বুধবার) রাতে নাফনদী পার হয়ে সাবরাং ইউপিস্থ আচারবুনিয়া লবণের মাঠ পয়েন্ট দিয়ে বিপুল পরিমাণ ইয়াবার চালান মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে।

তিনি বলেন, সিরাজের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তাকে সঙ্গে নিয়ে ওই এলাকায় বিজিবি ও পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে। যৌথ বাহিনীর উপস্থিতি লক্ষ্য করা মাত্রই ইয়াবা পাচারকারী স্বশস্ত্রদল টহলদলের উপর অতর্কিতভাবে গুলি করতে থাকে। এসময় যৌথ বাহিনী আত্মরক্ষার্থে কৌশলগত অবস্থান নিয়ে পাল্টা গুলি করে। উভয়পক্ষের মধ্যে প্রায় ৫-৭ মিনিট গুলি বিনিময় চলে। গুলির শব্দ থামার পর টহলদলের সদস্যরা এলাকা তল্লাশি করে সিরাজকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে।

তিনি আরও বলেন, এ সময় তার পাশে ২টি দেশীয় তৈরি বন্দুক (এলজি), ৫০ হাজার ইয়াবা, ১২ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ৮ রাউন্ড খালি খোসা পাওয়া যায়।

মেজর শরীফুল ইসলাম জমাদ্দার বলেন, গুরুতর আহতাবস্থায় গুলিবিদ্ধ ব্যক্তিকে টেকনাফ উপজেলা স্থাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জরুরি চিকিৎসা শেষে তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানোর নির্দেশ দেন। চিকিৎসকের নির্দেশনা মোতাবেক কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয় তাকে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় সময় বিজিবির দুই সিপাহী জহিরুল ইসলাম ও রানা মিয়া এবং দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: টেকনাফ, নিহত, বন্দুকযুদ্ধ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 − thirteen =

আরও পড়ুন