টেকনাফে বিরল প্রজাতির অজগার সাপ অবমুক্ত

fec-image

কক্সবাজারের টেকনাফে একটি বিরল প্রজাতির দশ ফুট লম্বা একটি অজগর সাপ অবমুক্ত করা হয়েছে। শনিবার (১৪ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে শামলাপুর বনবিটের অধীনে কাটাছড়া নামক পাহাড়ে এ সাপটি অবমুক্ত করা হয়।

বনবিভাগ জানায়, একটি বিরল প্রজাতির সাপ পাহাড় থেকে শামলাপুর নয়াপাড়া আলী আকবর মেম্বারের বাড়ি পাশে ঢুকে পড়ে। এমন সংবাটি বনবিভাগ ও সংশ্লিষ্ট লোকজনের মাঝে পৌঁছালে তারা নিয়ন্ত্রণে আনতে চেষ্টা করে। দীর্ঘ সময় পার করে সকালের সন্ধিক্ষণে বনবিভাগ ও সিপিজি দলের লোকজন মিলে সাপটি ওই পাহাড়ে অবমুক্ত করে।

কোডেক এন্ড নেচার প্রকল্পে সাইট সমন্বয়কারী নজরুল ইসলাম চৌধুরী জানান, শামলাপুর ভিসিএফ সভাপতি মোহম্মদ শাহাজাহান সাপের খবরটি পেলে আমাদের মাঝে পৌঁছায়। পরে পাহাড়ে সাপটি অবমুক্ত করে দেয়া হয়। তিনি আরও বলেন, এই শাহাজাহান বেশ কিছু লোকালয়ে ঢুকে পড়া বন্যপ্রাণী এর আগেও অবমুক্ত করেন।

টেকনাফ রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা ও সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) তারেক রহমান জানান, সাপটি ১৫ থেকে ১৬ কেজি ওজনের হবে। এলাকায় এর আগে এইরকম সাপ বিচরণ করতে দেখা যায়নি। হঠাৎ করে সাপটি লোকালয়ে প্রবেশ করায় পরে নিয়ন্ত্রণে এনে অবমুক্ত করা হয়। এর সাধারণ নাম ‘বার্মিস পায়থন’ ও বৈজ্ঞানিত নাম পায়থন বাইভিটেটোস।

তিনি আরও বলেন, গত ৮ আগস্ট কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগের বড় ইনানী এলাকায় লোকালয়ে ঢুকে পড়া অপর একটি বিশাল অজগর সাপ ইনানী সংরক্ষিত গভীর বনাঞ্চলের ভেতর অবমুক্ত করা হয়।

সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন পাহাড় কর্তন ও গাছপালা উজাড় হওয়াতে বন্যপ্রাণী লোকালয়ে প্রবেশ করছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eight + 2 =

আরও পড়ুন