টেকনাফে মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার

fec-image

টেকনাফের বাহারছড়া কচ্চপিয়া এলাকায় নিখোঁজের ৩দিন পর আবদুল আজিজ (১২) এর লাশ পাওয়া গেছে। ৭ নভেম্বর সন্ধ্যায় কচ্চপিয়াস্থ মেরিনড্রাইভ সংলগ্ন সৈকতের ঝোপ থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

স্থানীয় সুূত্রে জানা যায়, পথচারীরা দূর্গন্ধ পেয়ে, ওই ঝোপে গিয়ে দেখতে পাই সেখানে বিবস্ত্র এক শিশুর মৃতদেহ পড়ে আছে। পরে ফরিদ মিয়ার পরিবারের সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে এটি নিখোঁজ আবদুল আজিজের লাশ বলে শনাক্ত করে। সে মুহাম্মদিয়া এবতেদায়ী দাখিল মাদ্রাসার ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্র।

উল্লেখ্য ৪ নভেম্বর থেকে সে নিখোঁজ ছিল। নিখোঁজের পর তার পিতা ফরিদ মিয়া বাদী হয়ে একই এলাকার মৃত অলি চানের ছেলে ছৈয়দ হামজা, ছৈয়দ হামজার ছেলে আবদুল্লাহ ও ছৈয়দ আলমের ছেলে রায়হানকে বিবাদী করে থানায় অভিযোগ করে।

ওই অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ৪ নভেম্বর দুপুর ১টায় অপহৃত ছেলে আবদুল আজিজ(১২) পাশের দোকানে নাস্তার জন্য যাই। সেখানে একই এলাকার ছৈয়দ হামজার ছেলে আবদুল্লাহ অপহৃতকে জরুরী কথা আছে বলে দেখা করতে বলে। ছেলে বাড়ীতে নাস্তা রেখে সরল বিশ্বাসে তার সাথে দেখা করতে গিয়ে আর ফিরে আসেনি। তাকে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও সন্ধান না পেয়ে অবশেষে থানায় অভিযোগ দায়ের করলেও ছেলেকে জীবিত ফেরত পাইনি পরিবার।

টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ, মো. হাফিজুর রহমান সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘাতকদের আটকের অভিযান চলছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 + 7 =

আরও পড়ুন