টেকনাফ বাহারছড়ায় তিন ডাকাত আটক: মাদক ও অস্ত্র উদ্ধার 

fec-image

 টেকনাফে তিন রোহিঙ্গা ডাকাতকে আটক করেছে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কক্সবাজারের টেকনাফের বিশেষ জোন এর সদস্যরা।  এসময় ২ হাজার পিস ইয়াবা, দেশি অস্ত্র আগ্নেয়াস্ত্র ও ৮ রাউন্ড তাজা কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।

শুক্রবার (২৬ মার্চ) সকাল ৭টার দিকে টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর বড়ডেইল এলাকার ডাকাত কামরুলের বাড়িতে এ অভিযান চালানো হয়।

আটককৃতরা হলেন, বাহারছড়া শামলাপুর বড়ডেইল এলাকার নুরুল আলমের সহযোগী ডাকাত কামরুল (৩৫) , টেকনাফের নয়াপাড়া আনসার ক্যাম্পে হামলা করে আনসার কমান্ডার হত্যার পর অস্ত্র লুটের ঘটনায় অভিযুক্ত রোহিঙ্গা ডাকাত (নিহত) নুরুল আলমের ছোট ভাই কামাল সাদেক (২৪) ও তার সহযোগী মো. আলী (২৬)। কামাল সাদেক ও মো. আলী রোহিঙ্গা নাগরিক এবং টেকনাফ মুছনী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এইচ ব্লক ও এ ব্লকের বাসিন্দ এবং কামরুল বাহারছড়া বড় ডেইল এলাকার মৃত মনিরুজ্জামানের ছেলে।

মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর টেকনাফ বিশেষ জোনের সহকারী পরিচালক মো. সিরাজুল মোস্তফা বলেন, মাদকের বড় চালানের খবরের ভিত্তিতে ওই বাড়ীতে অভিযান চালানো হয়। এসময় তিনজনকে ইয়াবা, এলজি ও কার্তুজসহ আটক করা হয়। তাদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী এবং ডাকাত দলের সদস্য ও অপহরণসহ মুক্তিপণ আদায়ের মতো নানান অপরাধে জড়িত। এঘটনায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ও অস্ত্র আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: অস্ত্র, আটক, টেকনাফ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − 12 =

আরও পড়ুন