টেকনাফ বিজিবি’র পৃথক অভিযানে মিয়ানমারের মুদ্রাসহ ইয়াবা জব্দ , আটক ৭

fec-image

টেকনাফে পৃথক অভিযান চালিয়ে ইয়াবা, মিয়ানমার মুদ্রা, স্বর্ণ ও সিএনজি জব্দ করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। এ সময় বিভিন্ন অপরাধে জড়িত থাকা ৭ জনকে আটক করা হয়েছে।

বিজিবি সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার ( ১৩ মে) রাতের প্রথম প্রহরে টেকনাফ (২বিজিবি) ব্যাটালিয়ন সদরের বিশেষ টহল দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ কেরুনতলীর নাফনদী সংলগ্ন একটি বাড়িতে মাদক মজুদের সংবাদ পেয়ে অভিযান চালায়। এ সময় টেকনাফ বরইতলীর মৃত আব্দুল জাব্বারের ছেলে মো. শফি উল্লাহ (৫৫), মো. শফি উল্লাহর ছেলে আনোয়ার হোসাইন (১৯), মো. শফি উল্লাহর স্ত্রী তৈয়বা বেগম (৪০), আনোয়ার হোসাইনের স্ত্রী লাকি আক্তার (১৯) কে জিজ্ঞাসাবাদ করে গ্যাস সিলিন্ডারের ভেতর হতে ১০ হাজার পিস ইয়াবা, ২ লাখ ৩০ হাজার ২শ মিয়ানমার মুদ্রা কিয়াত জব্দ করা হয়। এছাড়াও পাচার হওয়া ভিকটিমদের হতে জোরপূর্বক রেখে দেওয়া ১৪ গ্রাম স্বর্ণালংকারসহ তাদের আটক করা হয়। আটককৃতদের দেওয়া তথ্যে হ্নীলা চৌধুরী পাড়া স্লুইচ গেইটে লুকানো অবস্থা হতে আরো ৩০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

অপরদিকে রাত ৩টায় টেকনাফের প্রধান সড়কে সিএনজি থাকা ব্যক্তিদের দেহ তল্লাশি করে অভিনব কায়দায় ফিটিং করা ৬শ পিস ইয়াবা, ১টি সিএনজি ও ৩টি ব্যবহৃত মুঠোফোন উদ্ধার করা হয়। এ সময় উত্তর লেদার শফিক আহমদের ছেলে মো. পারভেজ (১৬), সোলতান আহমদের ছেলে মো. জালাল (২৬) এবং রাহমত আলীর ছেলে মো. রেদোয়ান (১৯) কে আটক করে ২ বিজিবি ।

টেকনাফ (২ বিজিবি) ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে কর্নেল শেখ খালিদ মোহাম্মদ ইফতেখার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, জব্দকৃত স্বর্ণ জেলা প্রশাসকের ট্রেজারি শাখায় জমা দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ইয়াবা, মিয়ানমার মুদ্রা, সিএনজি এবং ব্যবহৃত মুঠোফোনসহ আটককৃতদের টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 + 4 =

আরও পড়ুন