ডায়াবেটিস-উচ্চ রক্তচাপ বশে রাখার উপায়

fec-image

বর্তমান সময়ে আলোচিত রোগ ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ। এটি মানুষের স্বাভাবিক জীবন চলাচলে বাঁধার সৃষ্টি করে। অনেক জীবনে কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে এ দুটি রোগ। তাই আজ আলোচনা করা যাক কীভাবে ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।

আমাদের অধিকাংশ মানুষের রান্নাঘরের বিভিন্ন প্রাকৃতিক ভেষজ ও মসলা থেকে থাকে। যা আমাদের শারীরিক বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করতে পারে।

তেমনই এক উপাদান হলো মেথি। সবার রান্নাঘরেই মেথি বীজ থাকে। তরকারি, আচার থেকে শুরু করে বিভিন্ন খাবার তৈরিতে ব্যবহৃত হয় মেথি। তবে অনেকেরই হয়তো অজানা, সকালে মেথির বীজ ভেজানো পানি খালি পেটে পান করারও অনেক উপকারিতা আছে।

মেথির পানিকে একটি জাদুকরী ওষুধ হিসেবে বিবেচনা করা হয়, যা ওজন কমাতে সাহায্য করে। এমনকি কোলেস্টেরল ও রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক মেথির পানি কতটা উপকারী-

মেথির বীজে থাকে প্রোটিন ও নিকোটিনিকের মতো পুষ্টি উপাদান। যা খুশকি, টাক পড়া, চুল পড়া ও মাথার ত্বকের বিভিন্ন সমস্যার চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়। মেথির বীজ কোষ্ঠকাঠিন্য, ঠান্ডা, গলা ব্যথার মতো বিভিন্ন অসুখ থেকে বাঁচতেও সাহায্য করে।

কোলেস্টেরল কমায়

মেথি ভেজানো পানি পান করলে এমনকি ভেজানো বীজ চিবিয়ে খেলেও শারীরিক বিভিন্ন উপকার পাবেন। শরীরের লো-ডেনসিটি লাইপো প্রোটিন (এলডিএল) বা খারাপ কোলেস্টেরলের উৎপাদন কমাতে মেথির বীজ কার্যকর বলে পাওয়া যায়।

মিশিগান ইউনিভার্সিটির দ্বারা পরিচালিত একটি সমীক্ষা অনুসারে, মেথির বীজে উপস্থিত স্টেরয়েডাল স্যাপোনিনগুলি অন্ত্রে কোলেস্টেরলের শোষণকে ধীর করে দিতে পারে।

ডায়াবেটিস মোকাবিলায়

মেথি বীজ ডায়াবেটিস মোকাবেলা করতে ও রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতেও ব্যবহার করা যেতে পারে। এটিতে ফোরও-আইএলই নামক একটি অস্বাভাবিক অ্যামিনো অ্যাসিড আছে, যা শুধু মেথির বীজে পাওয়া যায়।

গবেষকদের মতে, ফোরও-আইএলই এর কিছু অ্যান্টি-ডায়াবেটিক গুণ আছে। এটি ইনসুলিন নিঃসরণ বাড়াতে পারে। কোম ইউনিভার্সিটি অব মেডিকেল সায়েন্সের ইরানি গবেষকরা পরামর্শ দিয়েছেন, মেথির বীজ ডায়াবেটিস চিকিৎসায় ব্যবহার করা যেতে পারে।

স্তন্যদানকারীদের জন্যও উপকারী। এর পাশাপাশি ওজন কমানো থেকে শুরু করে চুল পড়ার সমস্যা ও ত্বকের বিভিন্ন সমস্যারও সমাধান করে মেথি বীজ।

সূত্র: এনডিটিভি

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 4 =

আরও পড়ুন