“আতঙ্কগ্রস্ত না হয়ে ডেঙ্গু প্রতিরোধে ডাক্তারের পরামর্শ মেনে ধের্্যর সাথে ডেঙ্গুর বাহক এডিস মশা নিধনে সকলকে কাজ করতে হবে।”
খাগড়াছড়ি হাসপাতালে

ডেঙ্গু শনাক্তে কিট কিনতে অনুদান দিলেন কংজরী চৌধুরী

fec-image

খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগ শনাক্তে কিট ক্রয়ের জন্য ২লক্ষ ৫০ হাজার টাকা প্রদান করেছেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে তিনি হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগাক্রান্তদের দেখতে গিয়ে ডেঙ্গু রোগ নির্ণয়ে কিট সংকটের বিষয়ে অবগত হয়ে তাৎক্ষণিক ভাবে আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) নয়ন ময় ত্রিপুরার হাতে তিনি এ নগদ অর্থ প্রদান করে।

এ সময় খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ সদস্য জুয়েল চাকমা,খগেশ্বর ত্রিপুরা, শতরূপা চাকমা, নিগার সুলতানা, ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা: মিটন চাকমা, ডা: জয়া চাকমা, রাজেন্দ্র ত্রিপুরা, বিউটি চাকমা, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি টিকো চাকমা উপস্থিত ছিলেন।

রোগিদের খোঁজ খবর নিতে গিয়ে চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী বলেন, আতঙ্কগ্রস্ত না হয়ে ডেঙ্গু প্রতিরোধে ডাক্তারের পরামর্শ মেনে ধের্্যর সাথে ডেঙ্গুর বাহক এডিস মশা নিধনে সকলকে কাজ করতে হবে। সে সাথে পরিবেশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রেখে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সকলে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী ডেঙ্গু রোগসহ হাসপাতালের যে কোন সমস্যা নিরসনে জেলা পরিষদ পাশে থাকবে বলে জানান।

খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার নয়ন ময় ত্রিপুরা জানান, হাসপাতালে ডেঙ্গু সনাক্তের কিট নেই। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ডেঙ্গু রোগিদের সেবা নিশ্চিত করার জন্য বাজার থেকে প্রতি কিট ২৫০ টাকা থেকে পৌনে ৩ শ টাকায় কিনছে। জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের দেওয়া অর্থ দিয়েও কিট কেনা হবে। তার মতে, ঈদের ছুটিতে ঢাকার লোকজন খাগড়াছড়ি আসতে শুরু করেছে। ফলে ডেঙ্গু রোগির সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কংজরী চৌধুরী, কিট, খাগড়াছড়ি হাসপাতালে
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen − seventeen =

আরও পড়ুন