থানচিতে পর্যটন কেন্দ্রগুলিতে ভ্রমনে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে প্রশাসন

fec-image

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এর ৭ নম্বর বিপদ সংকেত পাওয়ার পর শনিবার দুপুর থেকে বান্দরবানের থানচি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে পর্যটন কেন্দ্র গুলিতে পর্যটকদের ভ্রমনের সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারী করা হয়েছে।

স্বাভাবিক অবস্থা না আসার পর্যন্ত এই জারী বলবদ থাকবে। প্রশাসনের জারী হওয়ার পর শতাধিক পর্যটক ফেরত চলে গেছে বলে পর্যটন তথ্য কেন্দ্রের দায়িত্বরত জয়নাল আবেদিন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

থানচি উপজেলা বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্র নাফাঁখুম, আমিয়াখুম, সাতভাইখুম, রেমাক্রী খুমসহ সাংগু নদীতে পর্যটকবাহী ছোট বড় নৌযান চলাচলের উপরও নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

প্রশাসনের সূত্রে জানা যায়,  আবহাওয়া বার্তা কক্সবাজার ও চট্টগ্রাম সমুদ্রের উপর ৭ নম্বর বিপদ সংকেত জানার পর প্রশাসনিকভাবে থানচি উপজেলা তিনটি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে। তৎমধ্যে থানচি বাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, বড় মধক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পানেডং পাড়া বৌদ্ধ বিহার আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করা যাবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আরিফুল হক মৃদুল ও থানা অফিসার ইনচার্জ মো. জোবাইরুল হক এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। যোগাযোগ করা হলে উপজেরা নির্বাহী অফিসারের কার্যারয়ের সহকারী অফিস প্রধান সিও, তপন কান্তি দাশ ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আসার কারণে জানমাল ক্ষতি হতে পারে ধারনা করে পর্যটন কেন্দ্র গুলিতে ভ্রমনে প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা কথা স্বীকার করেন তিনি। তিনি আরও বলেন, প্রশাসনিকভাবে তিনটি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে এবং সকল জনপ্রতিনিধিদের জানানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: থানচিতে, পর্যটন কেন্দ্রগুলিতে, প্রশাসন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 + 12 =

আরও পড়ুন