ধর্মান্তরিত হওয়ার কারণেই ওমর ফারুক ত্রিপুরাকে হত্যা করা হয়, দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র সংসদের

fec-image

পার্বত্য চট্টগ্রামের বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলার রোয়াংছড়ি ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ওমর ফারুক ত্রিপুরাকে সন্ত্রাসী কর্তৃক হত্যা করা হয়। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নামাজ পড়ে মসজিদ থেকে ফেরার পথে আগে থেকে ওৎপেতে থাকা সন্ত্রাসী কর্তৃক হত্যা করা হয়। এই হত্যাকাণ্ড পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি বিনষ্ট করবে। পার্বত্য চট্টগ্রামে এটাই শুধু প্রথম কোন হত্যাকান্ড নয়, এরকম অসংখ্য হত্যাকাণ্ড পার্বত্য চট্টগ্রামে প্রতিনিয়তই ঘটছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র সংসদের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয়, পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র সংসদ মনে করে, এই ধরনের হত্যাকাণ্ডের মধ্য দিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রতিনিয়ত বিনষ্ট হচ্ছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম নিয়ে কাজ করা প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের উচিত এই সমস্ত হত্যাকাণ্ডের তদন্ত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা। পত্র-পত্রিকার মাধ্যমে আমরা জেনেছি শুধুমাত্র ধর্মান্তরিত হওয়ার কারণেই এই ব্যক্তিকে দীর্ঘদিন ধরে হত্যার হুমকি দেয়া হচ্ছিল। শুক্রবার রাতে নামাজ পড়ে যাওয়ার পথে তাকে হত্যা করা হয়। শুধুমাত্র ধর্মীয় পরিচয়ের কারণে এভাবে হত্যাকাণ্ড বাংলাদেশ ইতিপূর্বে ঘটেছে কিনা আমাদের জানা নেই। আমরা মনে করি ধর্ম প্রত্যেক ব্যক্তির স্বাধীনতার বিষয়। ধর্মান্তরিত হলে কোন ব্যক্তির জাতীয়তা পরিবর্তন হতে পারে না। কারণ জাতীয়তা ব্যক্তির বংশপরিচয়, আর ধর্ম বিশ্বাসগত পরিচয় বহন করে।

পাহাড়ের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করার জন্য আমরা প্রশাসনের কাছে উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × five =

আরও পড়ুন