নাইক্ষ্যংছড়িতে ছাত্রলীগের কমিটির সম্মেলনে সভাপতি প্রার্থী ৩২ বছরে রেজাউল করিম

fec-image

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রের ৫ (এর) ক ধারা অনুযায়ী ২৯ বছরের উপরে কারো প্রার্থী হবার সুযোগ নেই। অথচ বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে এবার আসন্ন উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন ও কাউন্সিলে সভাপতি পদে ৩২ বছর বয়সী একজন প্রার্থী হয়েছে গঠনতন্ত্র না মেনে। তিনি হলেন সদ্য বিলুপ্ত কমিটির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম। তিনি তার জীবনবৃত্তান্তে এসব তথ্য জমা দিয়েছেন এবং মনোনয়ন বাচাই এ অংশ নিচ্ছেন।

অভিযোগ উঠেছে, রেজাউল করিমের জাতীয় পরিচয়পত্রের অনুমোদিত অনলাইন কপি ও ভোটার তালিকা থেকে প্রাপ্ত তথ্য মতে তাঁর জন্ম ১৯৯০ সালের পহেলা জুন। সেই হিসেবে তাঁর বয়স প্রায় ৩২ বছর। যে জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর- ২৩৫৫৬০৬৫৯৭, ভোটার নং- ০৩০২৬৯০০০০০২।

গঠনতন্ত্রে বয়সের বাধ্যবাধকতা থাকলেও ৩২ বছর বয়সে প্রার্থী হবার বিষয়ে জানতে চাইলে রূঢ় ব্যবহার করে রেজাউল করিম বলেন, আমি দলের নেতাকর্মী ছাড়া কাউকে এ ব্যাপারে কথা বলতে বাধ্য না। কোন সাংবাদিক সামনে আসলে আমি জাতীয় পরিচয়পত্র দেখাবো।

উপজেলা ছাত্রলীগ সূত্র জানায়, দীর্ঘ ৫ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন। সর্বশেষ ২০১৬ সালের ২০ ডিসেম্বর বদুর উল্লাহ’কে সভাপতি ও উবাচিং মার্মাকে সাধারণ সম্পাদক করে ৬ সদস্যের আংশিক কমিটি ঘোষণা করে বান্দরবান জেলা ছাত্রলীগ। আসন্ন সম্মেলনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশী ৩০ জন ছাত্রনেতা ইতিমধ্যে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির কাছে জীবনবৃত্তান্ত জমা দিয়েছে। তারমধ্যে সভাপতি পদে ১০ ও সাধারণ সম্পাদক পদে ২০ জন প্রার্থী।

রেজাউল করিমের প্রার্থী হবার বিষয়টি স্বীকার করে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক বদুর উল্লাহ বলেন, অন্যসব প্রার্থীর মতোই ২০ জানুয়ারি রেজাউল করিম জীবনবৃত্তান্ত জমা দেন। ২৫ জানুয়ারি সকল প্রার্থীদের উপস্থিতিতে যাচাই-বাছাই করার কথা থাকলেও জেলা ছাত্রলীগ দুই সপ্তাহের জন্য সম্মেলন সংক্রান্ত কার্যক্রম স্থগিত রাখার নির্দেশ দেয়। ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সবকিছু চলবে। গঠনতন্ত্রের বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই। যাচাই-বাছাই পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

আসন্ন সম্মেলনে সভাপতি পদপ্রার্থী মেহেদী হাসান সানী বলেন, ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রে ২৯ বছরের উপরে কারো প্রার্থী হবার সুযোগ নেই। ২৯ বছরের উপরে, বিবাহিত এবং অছাত্র কেউ যেন সভাপতি-সম্পাদক নির্বাচিত হতে না পারে সে ব্যাপারে আমরা লিখিত অভিযোগ দিব।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 − 2 =

আরও পড়ুন