নাইক্ষ্যংছড়িতে পর্যটন সহায়ক আধুনিক রেস্টুরেন্ট করার উদ্যোগ

fec-image

নাইক্ষ্যংছড়িতে শেষ কর্মদিনে পর্যটন সহায়ক আধুনিক রেস্টুরেন্ট করার উদ্যোগ নিয়েছেন বিদায়ী ইউএনও সাদিয়া আফরিন কচি। এতে প্রায় ৩০ লাখ টাকা ব্যয় হবে। ইতোমধ্যে দক্ষ প্রকৌশলী দ্বারা নকশা প্রণয়নের কাজ শেষ হয়েছে। এটি প্রতিষ্ঠিত হলে পর্যটনের বিকাশ ঘটবে উপজেলায়।

এই প্রসঙ্গে ইউএনও সাদিয়া আফরিন কচি বলেন, নাইক্ষ্যংছড়ি সম্ভাবনাময় একটি উপজেলা। দায়িত্বপালনকালীন সরকারি রুটিনকর্মের পাশাপাশি ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এখানকার উন্নয়নে কাজ করার চেষ্টা করেছি। উপবনে আধুনিকায়নের পাশাপাশি একটি রুচিসম্মত রেস্টুরেন্ট নির্মাণ হবে।

অন্যদিকে ১৯৯৫ সনে প্রতিষ্ঠিত হয় নাইক্ষ্যংছড়ি হাজী এম এ কালাম ডিগ্রী কলেজ। কলেজটি জাতীয়করণের প্রজ্ঞাপন জারী হয় ২০১৮ সনে। সরকারিকরণের পর কলেজের ৪১জন শিক্ষক-কর্মচারীর জন্য পাহাড়ি ভাতা চালুকরণের শেষ কাজটিও সম্পাদন হয়েছে ইউএনও সাদিয়ার হাত ধরে।

নাইক্ষ্যংছড়ির মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞতা স্বীকার করতে গিয়ে বিদায়ী ইউএনও বলেন, ‘নাইক্ষ্যংছড়ির মানুষের ভালোবাসা আজীবন আমার হৃদয়ে সোনার হরফে লেখা থাকবে।’ শান্তিপূর্ণ এই উপজেলার মানুষের উন্নতি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন তিনি।

উল্লেখ্য, ৩০তম বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন কচির বাড়ি কক্সবাজার জেলার রামুর পূর্ব জোয়ারিয়ানালায়। তার স্বামী ডা. মো. ইউনুছ কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen − seven =

আরও পড়ুন