আপডেট

নাইক্ষ্যংছড়ির পর্যটনকে অগ্রসরের জন্য পদক্ষেপ নেবো: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

fec-image

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সোনাইছড়িতে পর্যটন স্পট গড়ে তোলার লক্ষে সম্ভাব্য স্থান পরিদর্শন করেছেন বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট মো: মাহবুব আলী।

রবিবার (২০ অক্টোবর) সকালে তিনি নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার উপবন পর্যটন কেন্দ্র ও সোনাইছড়ি ইউনিয়নের জারুলিয়াছড়ি এলাকায় সম্ভাবনাময় পর্যটন স্পট পরির্দশন করেন। এ সময় মন্ত্রণালয়ের সচিব মো: মুহিবুল হক, পর্যটন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত সচিব) রাম চন্দ্র দাশ উপস্থিত ছিলেন।

দুটি পর্যটন স্পট পরিদর্শন শেষে প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন- ভারতের শিমলার চেয়ে অপার সম্ভাবনা রয়েছে নাইক্ষ্যংছড়ির পাহাড়ে। এখানকার প্রকৃতি অসাধারণ, মনোমুগ্ধকর। যেকোন পর্যটককে আকৃষ্ট করার মতো উপাত্ত এখানে আছে। এই সম্ভাবনাময় স্থানটিকে নতুন ভাবে গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে মন্ত্রণালয়ের। নাইক্ষ্যংছড়ির পর্যটনকে অগ্রসর করার ব্যপারে কিভাবে ব্যবহার করা যায় সেই লক্ষে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন- যখন পর্যটন শিল্প গড়ে উঠবে তখন নিরাপত্তা জোরদার হবে। নিরাপত্তাবিহীন কোন পর্যটন হবে না।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: শফিউল্লাহ বলেন- কক্সবাজার বিমান বন্দর, রামু রেল লাইন থেকে খুব নিকটেই সোনাইছড়ির জারুলিয়াছড়িতে আধুনিক পর্যটন কেন্দ্র নিয়ে এলাকার মানুষের মাঝে আশা জেগেছে। এখানে পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলা হলে পাহাড়ি-বাঙ্গালী শত শত পরিবারের যুবক যুবতীর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির পাশাপাশি এলাকার উন্নয়ন হবে।

সরকারের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের এই উদ্যোগকে তিনি স্বাগত জানিয়ে পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার জন্য উপজেলা পরিষদের সর্বাত্নক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

এর আগে প্রতিমন্ত্রী ও দুই সচিব নাইক্ষ্যংছড়ি সফরে পৌছলে উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো: শফিউল্লাহ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিয়া আফরিক কচি তাঁদের ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হোসেন, থানা অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মংহ্লা চাক, নারী ভাইস চেয়ারম্যান শামীমা আক্তার, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মো: ইমরান উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 2 =

আরও পড়ুন