নাইক্ষ্যংছড়ি-গর্জনিয়া বিধ্বস্থ ব্রিজ পরিদর্শণ: নতুন ব্রিজ চালুর আশ্বাস

fec-image

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদর থেকে গর্জনিয়া-কচ্ছপিয়া বিচ্ছিন্ন সংযোগ সেতু এলাকা পরিদর্শণ করেছেন বান্দরবান সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোসলেহ উদ্দিন। বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) সকালে পরিদর্শনকালে তিনি বলেন- বেইলী ব্রিজটি দ্রুত সময়ের মধ্যেই চলাচলের জন্য সংস্কার করে দেওয়া হবে। ইতোমধ্যেই ব্রিজটি খোলা হচ্ছে। পুরোনো সেতুর স্থায়ীত্বের কথা বিচার করে আগামীতে নতুন ব্রিজ তৈরির পরিকল্পনা আছে।

পরিদর্শণকালে নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি তসলিম ইকবাল চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ইমরান মেম্বার উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি খালের উপর এই ব্রিজটি পার হয়ে প্রতিদিন শত শত গাড়ি পাশের কচ্ছপিয়া-গর্জনিয়া ও দোছড়ি-বাইশারী ইউনিয়নে যাতায়াত করে। অনেক আগেই ব্রিজটির স্থায়ীত্ব খারাপ হয়ে আছে। এই অবস্থায় স্থানীয়রা ব্রিজটি বাতিল করে নতুন ব্রিজ তৈরির দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

এদিকে বান্দরবান সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোসলেহ উদ্দিন এই প্রতিবেদককে জানান- পার্বত্য চট্টগ্রামে যেসব বেইলী ব্রিজ রয়েছে সবগুলোই স্থায়ীভাবে নির্মীত হবে। তারমধ্যে বান্দরবানে ৭৬টির চাহিদা আছে। আর চাহিদা অনুযায়ী নাইক্ষ্যংছড়ি বেইলী ব্রিজটিও স্থায়ীভাবে করার পরিকল্পনা আছে।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার ভোর ৫টার দিকে নাইক্ষ্যংছড়ি বিজিবি ক্যাম্প সংলগ্ন বেইলী ব্রিজটির উপর দিয়ে ভারী ট্রাক পার হওয়ার সময় ধ্বসে পড়ে। এর পর থেকে রামু, নাইক্ষ্যংছড়ির সাথে কচ্ছপিয়া, গর্জনিয়া, দোছড়ি ও বাইশারী ইউনিয়নের মানুষের সরাসরি যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: নাইক্ষ্যংছড়ি, নির্বাহী প্রকৌশলী, বান্দরবান
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one + 8 =

আরও পড়ুন