“গাছের মতো উপকারী বন্ধু আর নেই”

নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের ১৪ বিওপিতে ২২ হাজার বৃক্ষ রোপণ করা হবে

fec-image

নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের ১৪ বিওপিতে ২২ হাজার বৃক্ষ রোপণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ১১বিজিবির অধিনায়ক ও জোন কমান্ডার লে. কর্নেল মো. আসাদুজ্জামান।

বুধবার (২৬ জুন) সকাল সাড়ে ১০টায় বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি ১১ বিজিবির উদ্যোগে ২০১৯ সনের বৃক্ষরোপন কর্মসূচীর অভিযান উদ্বোধনকালে একথা জানান।

তিনি বলেন, শুধু গাছ লাগালে চলবে না, গাছের সঠিক পরিচর্যা করতে হবে। ইচ্ছামতো বন নিধন করা যাবে না। গাছ না থাকলে অক্সিজেন তৈরি হবে না। আর অক্সিজেন না থাকলে মানুষ বাঁচবে না। তাই গাছের মতো উপকারী বন্ধু আর নেই। তাই এ বছর তার অধীনস্ত ১১ বিজিবি সদর, সীমান্ত ঘেষে থাকা ১৪টি বিওপিতে ২২ হাজার বনজ, ফলদ ভেষজ ও ঔষধিসহ বিভিন্ন জাতের বৃক্ষ চারা পর্যায়ক্রমে লাগানো হবে। আর ব্যাটালিয়ন সদরে আট হাজারের অধিক চারা রোপন করা হবে

এসময় ১১ বিজিবির মেডিকেল কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন মশিউর রহমান লিমন বিজিবির সহকারী পরিচালক মো. জামাল হোছাইন, জেসিও সামিউল ইসলাম, ব্যাটালিয়নের সকল জেসিও, এনসিওসহ বিভিন্ন পদবীর সৈনিক এবং নাইক্ষ্যংছড়ি প্রেসক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা সাংবাদিক মাঈনুদ্দিন খালেদ, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গির আলম কাজল ও দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক জংনাল আবেদীন টুকু উপস্থিত ছিলেন।

কর্মসূচীর উদ্বোধন শেষে বিশেষ মোনাজাত করেন ১১ বিজিবি জামে মসজিদের খতিব মাওলানা ছিদ্দিকুর রহমান।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: নাইক্ষ্যংছড়ি, বিওপিতে
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × five =

আরও পড়ুন